জীবের জন্য ভালোবাসা

ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

জীবের জন্য ভালোবাসা

সিদ্দিকুর রহমান, কেশবপুর (যশোর) ১২:০৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০১৯

print
জীবের জন্য ভালোবাসা

জীবে প্রেম করে যে জন সেই জন সেবিছে ঈশ্বর- স্বামী বিবেকান্দর এ উক্তিকে ধারন করে ঈশ্বরকে পাওয়ার আশায় বিড়াল, কুকুর ও শালিক পাখি লালন পালন করছেন যশোরের কেশবপুর উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামের শিশির কুমার সরকার ও তার স্ত্রী রাধু সরকার।

শিশির কুমার সরকারের বাড়িতে ২১টি বিড়াল, দুটি কুকুর ও অসংখ্য শালিক পাখি রয়েছে। ২১টি বিড়ালের ২১ রকম নাম রাখা হয়েছে। ১৫-১৬ বছর যাবত তিনি এ কাজটি করে যাচ্ছেন। গ্রামে কোনো বাড়িতে অসুস্থ বিড়াল থাকলে সুস্থ করার জন্য তার বাড়িতে রেখে যায়। সে বাজার থেকে ওষুধ কিনে তদের সুস্থ করার চেষ্টা করেন। 

শিশির কুমার সরকার একজন যাত্রা শিল্পী, ধর্মীয় বই ও সাধারণ বই পড়ে বহু অঞ্চল ঘুরে দেখেছেন ঈশ্বরকে পেতে হলে জীবের সেবা করতে হবে। অসংখ্য শালিক পাখি প্রতিদিন বেলা উঠার পরপরই খাওয়ার জন্য তার বাড়িতে চলে আসে। খাওয়ার পর ওরা আবার তাদের মতো করে চলে যায়। তার বাড়িতে প্রাণিগুলের জন্য আলাদা কোনো ঘর বা যায়গা নেই। বাড়ির ঘর-বারান্দা সব যায়গায় তাদের জন্য উন্মুক্ত।

শিশির কুমার সরকারের স্ত্রী রাধু সরকার জানান, তাদের জন্য আলাদা দুধ-মাছ বাজার থেকে প্রতিদিন কিনে আনতে হয়। ওরা কাঁচা মাছ খেতে চায়না। আলাদা ভাজি করে পিশিয়ে প্রত্যেকেকে আলাদা আলাদা করে খাওয়ার ব্যবস্থা করতে হয়। ওদের আমি এমনভাবে আগলে রাখি যে অন্য কোথায়ও রাতযাপন করতে পারি না।