মহম্মদপুরে পানি সংকটে ৫০ গ্রামের মানুষ

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

মহম্মদপুরে পানি সংকটে ৫০ গ্রামের মানুষ

মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি ৫:২২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০২, ২০১৯

print
মহম্মদপুরে পানি সংকটে ৫০ গ্রামের মানুষ

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার শিরগ্রাম এলাকায় সোনাপুর খালের সঙ্গে মধুমতি নদীর সংযোগ। খালের মুখ বালুতে ভরাট হওয়ায় পানি ঢুকতে পারছে না। যার কারণে জমিতেই শুকিয়ে যাচ্ছে কৃষকের কষ্টার্জীত জমির পাট। ফলে পানির অভাবে চার ইউনিয়নের ৫০ গ্রামবাসী কোনভাবেই জমির পাট কাটতে পারছে না।

চলতি বছরে সোনাপুর এ খালের বিভিন্নস্থানে খননের কাজ শেষ হলে ও প্রবেশদ্বারের মুখ বালুতে ভরাট থাকার কারনে ঢুকতে পারছে না পানি। যার কারণে খাল খনন করে কোন উপকারেই আসেনি ওইসব এলাকার এলাকাবাসীর। খালের প্রবেশদ্বার বন্ধ থাকায় এলাকাবাসী খালের বাকি অংশ কাটার উদ্যোগ নিলেও খাল খননে স্বউদ্যোগে মুষ্টিমেয় লোক উপস্থিত হওয়ায় সেটা সম্ভব হয়নি।

সোনাপুর গ্রামের পাটচাষি রেজাউল ইসলাম বলেন, মধুমতি নদীর সঙ্গে সংযুক্ত খালের মুখে ভালু ভরাট হয়ে থাকায় পানি ঢুকতে পারছে না। সরকার কোটি-কোটি টাকা ব্যয় করে খাল খনন কর্মসূচি করলেও খালের মুখে বালু ভরাটের কারণে খনণ কাজে কোনো লাভ হয়নি। আমরাতো পানির অভাবে কোন ভাবেই পাট কাটতে পারছি না জমিতে পাট শুকিয়ে যাচ্ছে।

শিরগ্রাম এলাকার মিশুক খান বলেন, খালের মুখ বন্ধ পানি ঢুকতে পারছে না কোন খাল-বিলেই কৃষকরা দিশেহারা। সরকারের খালের টাকা জলে গেছে। সাধারণ কৃষকের কোন উপকারেই আসেনী খাল খনন কর্মসূচি।

মাগুরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী সফিউল ইসলাম জানান, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান বর্ষা মৌসুমের কারণে খাল কাটা বন্ধ রেখেছে। কাজ শেষ হয়নি। আগামী বছর বাকি কাজ শেষ করবে।