চুয়াডাঙ্গায় বোমা বানাতে গিয়ে আঙুল বিচ্ছিন্ন

ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬

চুয়াডাঙ্গায় বোমা বানাতে গিয়ে আঙুল বিচ্ছিন্ন

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ১:৪২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৯

print
চুয়াডাঙ্গায় বোমা বানাতে গিয়ে আঙুল বিচ্ছিন্ন

চুয়াডাঙ্গায় বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে আব্দুল হাকিম (৪২) নামে এক ব্যক্তি গুরুতর জখম হয়েছেন। এতে তার ডান হাতের দু’টি আঙুল বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। বোমায় আব্দুল হাকিমের নিজ বসত ঘরও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গুরুতর জখম আব্দুল হাকিমকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (১৫ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জেলার দামুড়হুদার ধান্যঘরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ধান্যঘরা গ্রামের মৃত আবু বকর মণ্ডলের ছেলে আব্দুল হামিকের বসত ঘরের মধ্যে বোমা বিস্ফোরণের বিকট শব্দ হয়। বিস্ফোরিত বোমায় ওই ঘরের টিনের শেড উড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা ঘরের মধ্যে থেকে ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় হাকিমকে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে দামুড়হুদা থানা পুলিশও ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। জখম আব্দুল হাকিমকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সার্জারি কনসালটেন্ট এহসানুল হক তন্ময় জানান, বিস্ফোরিত বোমার আঘাতে হাকিমের ডান হাতের দু’টি আঙুল বিচ্ছিন্নসহ মাথা ও বাম পায়ে মারাত্মক জখম হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তার অবস্থা আশঙ্কজনক। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী বা ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস জানান, ঘটনাস্থল থেকে বোমা তৈরির বেশ কিছু আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানাই লাল সরকারসহ পুলিশের গোয়েন্দা ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন।

পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান জানান, জখম আব্দুল হাকিমের নামে থানায় একটি মামলা রয়েছে। এছাড়া হাকিম বেশ কিছুদিন ধরে নিজে বোমা বানিয়ে সন্ত্রাসীদের সরবরাহ করতো বলে তথ্য পাওয়া গেছে। বিষয়গুলো নিয়ে আমরা কাজ করছি। একই সঙ্গে তার স্ত্রীকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।