বাবার সঙ্গেও ভুয়া এএসপির প্রতারণা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

বাবার সঙ্গেও ভুয়া এএসপির প্রতারণা

বিএম ফারুক, যশোর ৪:৫১ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৭, ২০১৯

print
বাবার সঙ্গেও ভুয়া এএসপির প্রতারণা

যশোর শহর থেকে আটক হওয়া আইজিপির চিফ প্রটোকল অফিসার ও সহকারী পুলিশ সুপার পরিচয়দানকারী রাকেশ ঘোষ তার নিজের বাবা ও পরিবারের সঙ্গেও প্রতারণা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন তার বাবা সন্তোষ ঘোষ। অপরাধী হলে তার আইন অনুযায়ী বিচারের দাবি করেছেন তিনি। একই সঙ্গে তাকে যারা এই পথে এনেছে তাদেরও বিচার দাবি জানিয়েছেন সন্তোষ ঘোষ।

গত শুক্রবার রাকেশের বাবার বাড়ি চৌগাছা উপজেলার স্বরূপদাহ ইউনিয়নের বহিলাপোতা গ্রামে গেলে সন্তোষ ঘোষ বলেন, মনে করেছিলাম ছেলে চাকরি পেয়েছে। এখন আমার অভাবের সংসারে সুখ আসবে। রাকেশের মা হার্টের রোগী। এবার তাকে সুচিকিৎসা করাব। তা তো আর হলো না। ও আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছে। আগেও রাকেশ তার বোনের বিয়ের জন্য ব্যাংকে জমানো ডিপিএসের টাকা প্রতারণা করে আমার কাছ থেকে নিয়ে নিয়েছে। পুলিশ অফিসার পদে চাকরি পেয়েছে বলে সে আমার কাছ থেকে চার লাখ টাকা নিয়েছে। আমি জমি বিক্রি করে তাকে টাকা দিয়েছি।

রাকেশের বিষয়ে বর্তমানে সাতক্ষীরা জেলার তালা থানায় কর্মরত পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক শহিদ বলেন, তার চাকরি বা চাকরিজনিত কোনো বিষয়ই আমার জানা নেই। তার সঙ্গে যশোরে চাকরিরত অবস্থায় পরিচয়। তিনি হঠাৎ একদিন বলেন ৩৭তম বিসিএসে তিনি উত্তীর্ণ হয়েছেন।

স্বাভাবিকভাবেই একজন বিসিএস কর্মকর্তাকে আমরা সম্মান করি। সেভাবেই তাকে সম্মান করতাম। তার সঙ্গে চা পান করেছি। এরপর একদিন তার ছোট বোনের বিয়েতে যেতে আবদার করে। পরিচয়ের সূত্র ধরেই আবদার মেটাতে সেখানে গিয়েছি। মাস তিনেক হবে তিনি প্রশিক্ষণের দিনক্ষণও বলেছিলেন।