ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু 

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯ | ১০ আষাঢ় ১৪২৬

ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু 

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি ৮:৩৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০১৯

print
ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু 

যশোরের মণিরামপুরে মনোয়ারা ক্লিনিকে সন্তান প্রসব করতে এসে ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহত প্রসূতি সামছুন্নাহারের স্বামী আসাদুজ্জামান বাদি হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

গত শনিবার রাতে পুলিশ ক্লিনিকে অভিযান চালিয়ে ক্লিনিকের মালিক কথিত সার্জিক্যাল চিকিৎসক আব্দুল হাইকে আটক করেছেন। তিনি নিজে চিকিৎসক না হলেও সার্জিক্যাল চিকিৎসক সেজে বহুদিন ধরে রোগী ও রোগীর স্বজনদের ধোকা দিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

অন্য আসামিরা হলেন, অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া এলাকার সুব্রত মহলদার, মণিরামপুর উপজেলার কাজির গ্রামের শরিফুল ইসলাম, সুবলকাঠি গ্রামের সাইফুল ইসলাম, জয়পুর গ্রামের মোন্তাজ হোসেন, স্বরুপদহ গ্রামের তানিয়া সুলতানা হালিমা, হাসাডাঙ্গার নাসিমা খাতুন, সদর উপজেলার সিরাজসিংহ গ্রামের দীপা খাতুন, রামনগর গ্রামের মঞ্জুয়ারা খাতুন এবং ভূয়া চিকিৎসক আব্দুল হাইয়ের স্ত্রী মনোয়ারা খাতুন।

মণিরামপুর থানার ওসি সহিদুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় নিহত প্রসূতি শামসুন্নাহারের স্বামী আসাদুজ্জামান ক্লিনিকের মালিক আব্দুল হাইসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক আরও ৪-৫জনকে অজ্ঞাতনামা থানায় একটি হত্যা মামলা করেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শুভ্রা রানী দেবনাথ বলেন, সম্প্রতি মনোয়ারা ক্লিনিকের বিরুদ্ধে ভূয়া চিকিৎসক দিয়ে অপারেশন করানোর বিষয়ে ইউএনওর দপ্তরে একটি অভিযোগ পড়েছে। তাছাড়া ওই ক্লিনিকে রোগীর মৃত্যু নিয়ে গত শনিবার হাসপাতালের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত হয়।