ডিএনএ পরীক্ষায় মিলল পিতৃ পরিচয়, ধর্ষণকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১০ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

ডিএনএ পরীক্ষায় মিলল পিতৃ পরিচয়, ধর্ষণকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

মো. জামাল হোসেন, খুলনা
🕐 ৭:১০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২

ডিএনএ পরীক্ষায় মিলল পিতৃ পরিচয়, ধর্ষণকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

খুলনায় ধর্ষণ মামলায় আসামি রফিকুল ইসলাম ঢালীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। একইসাথে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়। এছাড়া ধর্ষণের ফলে জন্ম নেওয়া সনাতানকে পিতৃ পরিচয় দেওয়ার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার খুলনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্যাইবুন্যালের বিচারক আঃ সালাম খান এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফরিদ আহমেদ।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, আসামি রফিকুল ইসলাম ঢালী ও ভিকটিম নারী মহানগরীর ছোট বয়রা গোলদারপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও পরস্পর প্রতিবেশী ।

ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই নারীকে আসামি বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ২০০৯ সালের ২৬ আগস্ট থেকে একই বছরের ১৬ অক্টেবর পর্যন্ত একাধিকবার ধর্ষণ করে। এতে ওই নারী অন্তসত্বা হয়ে পড়লে আসামিকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে। কিন্তু সে অস্বীকার করে উল্টো তাকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিতে থাকে। এ ঘটনা রফিকুল ইসালাম ঢালীকে আসামি করে সোনাডাঙ্গা থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন ওই নারী।

এ মামলায় সোনাডঙ্গা থানার এসআই মুনসুর শফিকুল ইসলাম ২০১০ সালের ২৬ জানুয়ারি রফিকুলকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফরিদ আহমেদ এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, ধর্ষণের ফলে যে সন্তান জন্ম লাভ করেছে এখন তার বয়স হয়েছে ১২ বছর।

তিনি বলেন, ডিএনএ পরীক্ষায় পিতার পরিচয় সনাক্ত এবং রায়ের মাধ্যমে ওই সন্তান পিতৃ পরিচয় পেয়েছে। এটা তার জন্য বড় প্রাপ্তি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

 

 
Electronic Paper