ইউরোপকে ছাড়িয়েছে লাতিন আমেরিকা

ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১০ আশ্বিন ১৪২৭

কোভিড- ১৯

ইউরোপকে ছাড়িয়েছে লাতিন আমেরিকা

নিজস্ব প্রতিবেদক ২:১৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৮, ২০২০

print
ইউরোপকে ছাড়িয়েছে লাতিন আমেরিকা

করোনাভাইরাস মহামারিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান দেশগুলো করোনায় মৃতের সংখ্যার দিক থেকে শুক্রবার ইউরোপকে ছাড়িয়ে গেছে। পাশাপাশি ভারত ২০ লাখ সংক্রমনের রেকর্ড অতিক্রম করেছে।

সরকারী সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য সমন্বয় করে এএফপির হিসাবে বলা হয়, লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান দেশগুলোতে শুক্রবার পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১৩ হাজার ১২০ জন, যা ইউরোপের চেয়ে ৪৬০ জন বেশী।

গত বছরের শেষ দিকে চীনে ভাইরাস ছড়িয়ে পরার পরে এ পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১৯ মিলিয়ন লোক আক্রান্ত হয়েছে এবং ৭ লাখ ১৫ হাজারের বেশী লোকের মৃত্যু হয়েছে।

যে সব এলাকায় ভাইরাসের সংক্রমন কমে আসছিল সে সব এলাকায় আবার নতুন করে সংক্রমন দেখা দিয়েছে, তাছাড়া ভারত ও আফ্রিকার বিস্তৃত এলাকায় সংক্রমন বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।

ভারতে তিন সপ্তাহে সংক্রমন দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। একদিনে ৬০ হাজারের বেশী নতুন আক্রান্ত হওয়ায় শুক্রবার ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ছাড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পরে ভারত তৃতীয় দেশ যেখানে সংক্রমন ২০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ জনসংখ্যার দেশ ভারতে সরকারী হিসাবে করোনায় এ পর্যন্ত ৪১ হাজার ৫শ’ লোকের মৃত্যু হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গত মার্চের শেষ দিকে দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করার পরে রাতারাতি লাখ লাখ পরিযায়ী শ্রমিক কাজ হারায়। তবে অর্থনৈতিক টানাপোড়ন শুরু হলে ধীরে ধীরে লকডাউন শিথিল করা হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আফ্রিকান অফিসের কর্মকর্তা মেরি স্টিফেন শুক্রবার এএফপিকে বলেন, দুর্বল স্বাস্থ ব্যবস্থার মতো “সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও আফ্রিকার দেশগুলো করোনা মোকাবেলায় সর্বোত্তম চেষ্টা চালাচ্ছে।”

আফ্রিকার কিছু দেশে সংক্রমন ২০ শতাংশ কমে এসেছে, তবে নতুন করে সংক্রমনের আশঙ্কা রয়েছে।

ব্রাজিভিল থেকে টেলিফোনে এএফপিকে স্টিফেন বলেন, “আমরা যেমনটা ইতালিতে দেখেছি, একদিনে ১ হাজার লোকের মৃত্যু হয়েছে,আফ্রিকায় তেমন নয়, তারা এতে নিজেদের জন্য কম ঝুঁকি মনে করছে।”

বিশ্ব অতিদ্রুত সহজলভ্য কার্যকর ভ্যাকসিনের আশা করছে ,ভ্যাকসিন এলায়েন্স গেভি ঘোষণা দিয়েছে, ২০২১ সাল নাগাদ দরিদ্র দেশগুলোর জন্য ১০ কোটি ডোজ কোভিড- ১৯ ভ্যাকসিন প্রয়োজন হবে।

লাতিন আমেরিকায় ইতোমধ্যে ৫৩ লাখ লোক করোনা আক্রান্ত হয়েছে এবং মৃত্যুও সংখ্যা বাড়ছে। গত সপ্তাহে বিশ্বব্যাপী ৪১ হাজার ৫০০ লোকের মৃত্যু হয়েছে, এদেও ৪৪ শতাংশ অর্থাৎ ১৮ হাজার ৩০০ লোকের মৃত্যু হয়েছে এই অঞ্চলে।

লাতিন আমেরিকায় মোট আক্রান্তের অর্ধেকের বেশী প্রায় ২৯ লাখ আক্রান্ত হয়েছে ব্রাজিলে। লাতিন আমেরিকার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্ত দেশ মেক্সিকোতে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫০ হাজারে।