ট্রাম্পের অভিশংসন তদন্তের শুনানি টিভিতে সম্প্রচার

ঢাকা, বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ট্রাম্পের অভিশংসন তদন্তের শুনানি টিভিতে সম্প্রচার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ৩:২৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৪, ২০১৯

print
ট্রাম্পের অভিশংসন তদন্তের শুনানি টিভিতে সম্প্রচার

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্তের শুনানি টেলিভিশনে সম্প্রচার করবেন ডেমোক্র্যাটরা। রাজনৈতিক সুবিধা পেতে তারা এমন সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়োগ দিয়েছেন। এছাড়াও ট্রাম্পের অভিশংসন তদন্ত চলমান থাকাকালেই ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে যুক্তরাষ্ট্রে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। রয়টার্স ও বিবিসির প্রতিবেদন থেকে গতকাল এ তথ্য জানা গেছে।

বিবিসি বলছে, ট্রাম্পের অভিশংসন নিয়ে হওয়া তদন্তের শুনানি ডেমোক্র্যাটরা এতদিন গোপন কক্ষে করেছেন। রিপাবলিকানরাও এর সমালোচনা করে আসছেন। কিন্তু হঠাৎ করেই বড় ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন ডেমোক্র্যাটরা।

সিনিয়র ডেমোক্র্যাট নেতারা বলছেন, শুনানি টেলিভিশনে সম্প্রচার করলে নিরপেক্ষ ভোটারদের মধ্যে তদন্তের ব্যাপারে বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়বে। ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটাররা তাদের পক্ষে আসবেন।

অন্যদিকে বিশ্লেষকরা বলছেন, তদন্ত ডেমোক্র্যাট এবং রিপাবলিকান উভয়ের জন্য ঝুঁকি। তাই তারা যতটা সম্ভব সেই ঝুঁকি হ্রাসের চেষ্টা করছেন। বিশেষ করে ডেমোক্র্যাটদের যেহেতু এই ঝুঁকি বেশি তাই তারা শুনানি সম্প্রচারের মাধ্যমে দেখানোর চেষ্টা করবেন যে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ জো বাইডেনকে ঘায়েল করতে ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তা বন্ধের হুমকি দিয়েছিলেন।

এরই মধ্যে গত শুক্রবার হোয়াইট হাউসে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা চাদ উলফ ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। গত মাসে কেভিন ম্যাকআলিনানের পদত্যাগের পর কাউকে নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করা হচ্ছিল না। তাই অতিসত্বর নতুন ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বানাচ্ছেন ট্রাম্প।

এছাড়াও ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনোস্কিকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত শনিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি নিজেই এ আমন্ত্রণের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এমন সময়ে ট্রাম্প ইউক্রেনের নেতাকে আমন্ত্রণের কথা জানালেন যখন তার সঙ্গে এক ফোনালাপের জেরে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের তদন্ত শুরুর অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ।