আমাজন রক্ষায় ৭ দেশের চুক্তি

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৫ আশ্বিন ১৪২৬

আমাজন রক্ষায় ৭ দেশের চুক্তি

ডেস্ক রিপোর্ট ১০:৩১ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৯

print
আমাজন রক্ষায় ৭ দেশের চুক্তি

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে আগুনে পুড়ছে ‘পৃথিবীর ফুসফুস’খ্যাত আমাজনের জঙ্গল। বায়ুম-ল ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে চিন্তাগ্রস্ত সমগ্র বিশ্ব। এর মধ্যে সহায়তাও গ্রহণ করেনি ব্রাজিল। তবে এবার আমাজনকে রক্ষা করতে দক্ষিণ আমেরিকার সাতটি দেশ পদক্ষেপ নিতে সম্মত হয়েছে। ইতোমধ্যে একটি চুক্তিও স্বাক্ষর করেছে দেশগুলো। এদের মধ্যে রয়েছে বলিভিয়া, ব্রাজিল, কলম্বিয়া, ইকুয়েডর, গায়ানা, পেরু ও সুরিনাম। বিবিসির বরাতে এ তথ্য জানা গেছে।

সম্প্রতি কলাম্বিয়ায় আয়োজিত ‘কলম্বো শীর্ষ সম্মেলনে’ দেশগুলো ওই চুক্তিতে সই করেছে বলে জানা গেছে। দক্ষিণ আমেরিকার এই সাত দেশ নতুন বনায়নে কাজ করতে সম্মত হয়ে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। চুক্তিতে দুর্যোগ মোকাবিলা নেটওয়ার্ক ও স্যাটেলাইট নজরদারির কথা বলা হয়েছে। কলাম্বিয়ার লেটিসিয়া শহরে ওই শীর্ষ সম্মেলন আহ্বান করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইভান দুকে।

তিনি বলেন, ‘এই বৈঠক বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ আমাজন অঞ্চলের প্রেসিডেন্টদের মধ্যে সমন্বয় সাধনের ব্যবস্থা করবে।’

দক্ষিণ আমেরিকার ৭টি দেশের প্রেসিডেন্ট, ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং মন্ত্রীরা কম্বোডিয়ার লেটিসিয়ায় এ সম্মেলনে নিজ নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। অস্ত্রোপচারের জন্য প্রস্তুতি নেওয়ায় সম্মেলনে উপস্থিত থাকতে পারেননি ব্রাজিলের ডানপন্থি রাষ্ট্রপতি জেইর বলসোনারো। তবে ভিডিওলিঙ্কের মাধ্যমে সম্মেলনে অংশ নেন তিনি। এ বছরের ১৫ আগস্ট থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত জ্বলছে পৃথিবীর ফুসফুস আমাজন জঙ্গল। চলতি বছর এখন পর্যন্ত ব্রাজিলে প্রায় ৮০ হাজার আগুনের ঘটনা শনাক্ত হয়েছে। এর অর্ধেকেরও বেশি আগুনের ঘটনা ঘটেছে আমাজন বনাঞ্চলে।

পরিবেশবিদদের দাবি, এসব অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা সবটাই মানবসৃষ্ট। কৃষির জন্য জমি পরিষ্কার ও পশু চারণের জন্য বনে আগুন লাগানো হচ্ছে। ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বলসোনারো এক্ষেত্রে সমর্থন দিচ্ছেন।