ট্রাম্পের জামাতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬

ট্রাম্পের জামাতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ৮:৪০ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০১৯

print
ট্রাম্পের জামাতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন আবাসন ব্যবসায়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার জামাতা জ্যারেড কুশনার বর্তমানে হোয়াইট হাউসের সিনিয়র উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

 

প্রকাশিত এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, ২০১৭ সালে ওই দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে ৯০ মিলিয়ন ডলারের বিদেশি তহবিল পেয়েছেন কুশনার। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় ৭৫৯ কোটি ৪৭ লাখ ৮৫ হাজার টাকা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই অর্থ সরাসরি জ্যারেড কুশনারের হাতে পৌঁছায়নি। তার মালিকানা রয়েছে এমন একটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে এই অর্থ হাতবদল হয়েছে। যাদের কাছ থেকে টাকা এসেছে তাদের মধ্যে গোল্ডম্যান স্যাকসের একটি বিদেশি সহযোগী প্রতিষ্ঠানের নামও রয়েছে।
জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটিতে সরকারি নৈতিকতা ও দুর্নীতিবিরোধী আইন নিয়ে অধ্যাপনা করছেন জেসিকা টিলিম্যান। দ্য গার্ডিয়ানকে তিনি বলেন, তার এমন অযথাযথ প্রভাব বিস্তারের ঘটনা মানুষকে অবাক করে দেবে।

উল্লেখ্য, মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতিতে ইহুদি ধর্মাবলম্বী জ্যারেড কুশনারের ব্যাপক প্রভাব রয়েছে। ইসরায়েল মিত্র হিসেবে পরিচিত কুশনারকে এমবিএস নামে পরিচিত সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ঘনিষ্ঠ বলে মনে করা হয়। এমবিএস-কে রাজপরিবারে তার প্রতিদ্বন্দ্বিদের ব্যাপারেও সতর্ক করেছিলেন কুশনার। সে সময় সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানকে সৌদি যুবরাজ গর্বভরে বলেছিলেন, কুশনার তার পকেটে থাকেন।