মিয়ানমারকে সতর্ক করলেন টমাস অ্যান্ড্রুস

ঢাকা, শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

মিয়ানমারকে সতর্ক করলেন টমাস অ্যান্ড্রুস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
🕐 ৩:৩৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ০১, ২০২২

মিয়ানমারকে সতর্ক করলেন টমাস অ্যান্ড্রুস

মিয়ানমারে সামরিক জান্তা সরকার সহিংসতা, গণহত্যা, এবং ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘনের নির্মম কর্মকাণ্ড বৃদ্ধি করায় মিয়ানমারকে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘের তদন্তকারী টমাস অ্যান্ড্রু। জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে এক প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়। খবর ভয়েক অব আমেরিকা।

মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি বিষয়ে জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিবেদক, টমাস অ্যান্ড্রুস, মিয়ানমারের সামরিক নেতাদের জবাবদিহিতার সম্মুখীন করাতে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বহির্বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হলে দেশটির জনগণের অপূরণীয় ক্ষতি হবে এবং অগণিত মানুষের জন্য তা মৃত্যুদন্ডের আদেশের মতো হয়ে দাঁড়াবে। তিনি বলেন যে, তিনমাস আগে তিনি শেষবার প্রতিবেদন জমা দেওয়ার পর থেকে, দেশটির পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে উঠেছে।

অ্যান্ড্রুস বলেন যে, শাসক জেনারেলরা রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে তাদের রক্তাক্ত কর্মযজ্ঞের গতি আরও বৃদ্ধি করেছে। তারা ২,০০০ এরও বেশি বেসামরিক মানুষ হত্যা করেছে এবং ১১,০০০ এরও বেশি মানুষকে নির্বিচারে গ্রেফতার ও কারাবন্দি করেছে। তিনি আরও বলেন যে, জান্তা বাহিনী অনবরত জঙ্গিবিমান দিয়ে গ্রামে বোমাবর্ষণ করেছে, যার ফলে পুরুষ, নারী, ও শিশু নিহত হয়েছে।

অ্যান্ড্রুস বলেন, মিয়ানমারের শিশুরা এই সংকটে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে অন্যতম। তিনি প্রতিবেদনে জানান যে, জান্তার আক্রমণে আড়াই লক্ষেরও বেশি শিশু স্থানচ্যুত হয়েছে, শত শত শিশু নিহত বা পঙ্গু হয়েছে, এবং ১,৪০০ এরও বেশি শিশুকে নির্বিচারে আটক করা হয়েছে।

তিনি জানান যে, গত বছর সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে, ১৪২ জন শিশুকে নির্যাতন করা হয়েছে। তিনি বলেন যে, ঐ শিশুদের প্রহার করা হয়, শরীর কর্তন করা হয়, ছুরিকাঘাত করা হয়, এবং আরও অন্যান্য ভয়াবহ শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়। তিনি জানান, তাদের মৃত্যুদণ্ডের নাটক সাজিয়ে নির্যাতন করা হয়েছে এবং তাদের যৌন নির্যাতন করা হয়েছে।

 

 
Electronic Paper