শীতে করোনা বাড়ার শঙ্কা

ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

শীতে করোনা বাড়ার শঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক ১০:৩৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০২০

print
শীতে করোনা বাড়ার শঙ্কা

বিশ্বজুড়ে এখনো করোনা পরিস্থিতির আশানুরূপ উন্নতি হয়নি। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। এরই মধ্যে সামনে শীত মৌসুম। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শীতের সময় আবহাওয়ার কারণে সর্দি কাশিসহ ভাইরাসজনিত রোগ বেশি হয়। আবার যেকোনো ছোঁয়াচে রোগ শীত ও বর্ষাতে বেশি হয়। এজন্য শীতে সংক্রমণের আশঙ্কাও বাড়ে। সে হিসেবে শীতে দেশে করোনার প্রকোপ বাড়ার শঙ্কা রয়েছে। এজন্য সঠিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে করোনা ‘সেকেন্ড ওয়েভ’ (দ্বিতীয় ঢেউ) ঠেকিয়ে দিতে হবে।

গত ২৮ আগস্ট স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম জনস্বাস্থ্য বিষয়ক জাতীয় কমিটির (করোনা) সঙ্গে অনলাইন সভা করেন। 

ওই সভার নথি সূত্রে জানা যায়, বৈঠকে মহাপরিচালক বলেন, সামনেই শীতের মৌসুম, সবাই ভাবছে শীতের সময় করোনার ‘দ্বিতীয় ঢেউ’ আসতে পারে। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, ‘দ্বিতীয় ঢেউ ’-এর জন্য এখনি প্রস্তুতি নেওয়া প্রয়োজন। এখনই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে পারলে সংক্রমণ কমানো যাবে।

এ সময় বলা হয়, আইন করে মাস্ক পরানো এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নিয়ম করতে হবে। একই সঙ্গে এ বিষয়টি নিশ্চিত করতে কমিউনিটি এনগেজমেন্ট বাড়াতে হবে। প্রতিটি উপজেলায়, সিটি করপোরেশনে, ওয়ার্ডে কমিউনিট গ্রুপ করতে হবে; যারা স্বাস্থ্যবিধির নিয়ম মেনে চলতে এলাকার মানুষকে উদ্বুদ্ধ করবে।

এ বিষয়ে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্য অধ্যাপক ডা. লিয়াকত আলী গণমাধ্যমকে বলেন, বাতাস করোনাভাইরাস ট্রান্সমিশনের অন্যতম বাহক। শীতের সময় ঘর বদ্ধ থাকে এবং ভেন্টিলেশন কম থাকে বলে এসব রোগ বাড়ে। শীতে অনেকে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ রাখে, সেটা বাসা বাড়ি এবং অফিসগুলোতেও। এতে হাঁচি কাশি আবদ্ধ ঘরের বাতাসে জমা হয়। তাই সংক্রমণ কমাতে ভেন্টিলেশনের ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি বলেন, মহামারীর ক্ষেত্রে প্রথম ঢেউয়ের (ফার্স্ট ওয়েভ) পরে একটা সুপার ইমপোজড সুপার ওয়েভ আসবে। শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগের শ্বাসকষ্ট যাদের থাকে, তাদের শীতের সময়ে এসব রোগের টেন্ডেসি বাড়ে। এর কারণে ভাইরাসের শিকার হলে সেটা সিভিয়ার হয়ে যায়। তাই আমরা শীতকালের বিষয়ে বেশি কনসার্ন।

তিনি বলেন, ‘শীতের আগে সংক্রমণের হার কমে গেলেও শীতের সময়ে আরেকটা ঢেউ আসতে পারে। শীতের সময়ে সংক্রমণ বাড়বেই। এটা এখন কমলেও পরে বাড়বে। একে সেকেন্ড ওয়েভ বলাই যায়। তাই সংক্রমণ কমাতে এখন থেকেই পদক্ষেপ ও প্রস্তুতি নেওয়া দরকার। ’