ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়া চিকুনগুনিয়া রোধ করবে একই টিকা

ঢাকা, শুক্রবার, ৭ আগস্ট ২০২০ | ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭

ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়া চিকুনগুনিয়া রোধ করবে একই টিকা

ডেস্ক রিপোর্ট ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৪, ২০২০

print
ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়া চিকুনগুনিয়া রোধ করবে একই টিকা

বিশ্বে এখনও সম্পূর্ণভাবে কার্যকর করোনা প্রতিরোধী টিকার সন্ধান মেলেনি। তবে মার্কিন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের বিজ্ঞানী ও সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জেসিকা ম্যানিং নতুন এক টিকা তৈরির কথা জানিয়েছেন। এ টিকা ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়া-চিকুনগুনিয়াসহ মশাবাহিত যে কোনো সংক্রামক রোগ বা মহামারির প্রকোপ রুখে দিতে পারবে বলে আশা করা হচ্ছে। সরাসরি মশার লালা থেকেই ভ্যাকসিন তৈরির ওই উদ্যোগ মানুষের শরীরে পরীক্ষার (হিউম্যান ট্রায়াল) প্রথম পর্যায়ে রয়েছে।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার বিশ্বখ্যাত চিকিৎসা জার্নাল দ্য ল্যানচেটে জেসিকা ও তার সহকর্মীদের গবেষণার প্রাথমিক ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে।

বিশ্বব্যাপী সংক্রামক রোগের একটা বড় ক্ষেত্র হলো মশাবাহিত রোগজীবাণু। এসব রোগের কার্যকর কোনো টিকা এখনও আবিষ্কৃত হয়নি। তবে সহকর্মী ও অন্যান্য বিজ্ঞানীদের কাজের ওপর ভিত্তি করে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় অ্যালার্জি এবং সংক্রামক রোগের ক্লিনিকাল গবেষক ম্যানিং এ ব্যাপারে নতুন করে ভাবতে শুরু করেন।

মূলত ম্যালেরিয়া প্রতিরোধের চিন্তা থেকেই মশার লালা থেকে মশাবাহিত সকল রোগের জন্য সর্বজনীন একটা ভ্যাকসিন তৈরির কাজ শুরু করতে সক্ষম হন তিনি। এজন্য মশার লালা থেকে পাওয়া প্রোটিন ব্যবহার করেছেন ম্যানিং ও তার দল।

জেসিকার গবেষণায় বলা হয়েছে, একটি অ্যানোফিলিস মশার লালা থেকে তৈরি করা ভ্যাকসিন মানুষের শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে। ৪৯ জন প্রাপ্তবয়স্ক সুস্থ ব্যক্তির শরীরে এই ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। দেখা গেছে, এটি নিরাপদ এবং অ্যান্টিবডি এবং মানুষের কোষের প্রতিক্রিয়াকে বাড়িয়ে তুলতে সক্ষম।

মার্কিন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের বিজ্ঞানী জেসিকা ম্যানিং ও তার টিমের দাবি আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞানে এটাই হবে সব থেকে বড় আবিষ্কার। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই ভ্যাকসিন নিয়ে আরও অনেক গবেষণা বাকি। হিউম্যান ট্রায়ালের প্রথম ধাপে রয়েছে এটি।