ঝুঁকিতে ৯৭ শতাংশ মানুষ

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ২ আষাঢ় ১৪২৬

অসংক্রামক রোগ নিয়ে জরিপের ফল

ঝুঁকিতে ৯৭ শতাংশ মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক ১:০৯ অপরাহ্ণ, মে ৩০, ২০১৯

print
ঝুঁকিতে ৯৭ শতাংশ মানুষ

অসংক্রামক রোগের ঝুঁকিতে রয়েছেন দেশের ৯৭ শতাংশ মানুষ। মাত্র ৩ শতাংশ মানুষ এ রোগের ঝুঁকিতে নেই। ‘বাংলাদেশে অসংক্রামক রোগের ঝুঁকিসমূহের জরিপ-২০১৮’ থেকে এ তথ্য জানা গেছে। এজন্য সচেতনতার পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাবার, অধিক ফল, বেশি করে সবজিগ্রহণ ও মানুষের খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন জরুরি।

বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অসংক্রামক রোগের ঝুঁকির ব্যাপ্তি নিরূপণে স্টেপস জরিপের (ওয়াইজ অ্যাপ্রোচ টু কমিউনিকেবল ডিজিজ রিস্ক ফ্যাক্টর সার্ভিলেন্স) ফলাফল জাতীয়ভাবে প্রকাশ করা হয়। এ সময় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে জরিপের প্রধান গবেষক অধ্যাপক ডা. বায়জীদ খুরশীদ রিয়াজ জরিপের ফলাফল তুলে ধরেন।

বিভিন্ন প্রামাণ্য গবেষণার বরাতে চিকিৎসক ও জনস্বাস্থ্যবিদরাও বলছেন, বাংলাদেশে অসংক্রামক রোগের হার দিন দিন বেড়েই চলেছে। বিশেষত উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস সংক্রান্ত জটিলতা এখন উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তনের মাধ্যমে অসংক্রামক রোগের ঝুঁকি ইচ্ছা করলেই প্রতিরোধ করা সম্ভব। অধ্যাপক ডা. বায়জীদ খুরশীদ রিয়াজ জরিপের তথ্য তুলে ধরে জানান, অসংক্রামক রোগের ঝুঁকির কারণের মধ্যে রয়েছে প্রতিদিন ধূমপান, দৈনিক পাঁচ প্রমাণ মাপের (নির্দিষ্ট কৌটা পরিমাণ) কম ফল ও সবজি গ্রহণ, অপর্যাপ্ত শারীরিক পরিশ্রম, অতিরিক্ত ওজন, উচ্চ রক্তচাপ ও উচ্চমাত্রার রক্তের চর্বি এ রোগের মূল কারণ। এ সময় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে, শারীরিক পরিশ্রম করতে হবে, ফল ও শাকসবজি খেতে হবে।

জরিপে উঠে আসা অসংক্রামক রোগের ঝুঁকি : প্রতিদিন ধূমপান, দৈনিক ৫ প্রমাণ মাপের (নির্দিষ্ট কৌটা পরিমাণ) কম ফল ও সবজি গ্রহণ, অপর্যাপ্ত শারীরিক পরিশ্রম, অতিরিক্ত ওজন, উচ্চ রক্তচাপ, উচ্চমাত্রার রক্তের চর্বি। ১৮ থেকে ৬৯ বছর বয়সীদের মধ্যে এ ছয় ধরনের ঝুঁকি নেই এমন মানুষের শতকরা হার মাত্র ৩ শতাংশ। এর মধ্যে পুরুষের ১ দশমিক ৯ ও নারীর হার ৪ শতাংশ।

ওপরের ঝুঁকিগুলোর মধ্যে একটি বা দুটি ঝুঁকি রয়েছে এমন হার ৭০ দশমিক ৯ শতাংশ (পুরুষ ৬৮ দশমিক ৫ শতাংশ ও নারী ৭৩ দশমিক ১ শতাংশ) ও দুই বা ততোধিক ঝুঁকি রয়েছে ৪০ দশমিক ১ শতাংশ (পুরুষ ৩৯ দশমিক ৪ শতাংশ ও নারী ৪০ দশমিক ৯ শতাংশ) মানুষের। জরিপে আরও উঠে এসেছে, ওপরের ছয়টির মধ্যে তিনটি বা এর বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে ২৬ দশমিক ২ শতাংশ (পুরুষ ২৯ দশমিক ৬ শতাংশ ও নারী ২২ দশমিক ৮ শতাংশ) মানুষ।

সেন্টার ফর ন্যাচারাল রিসোর্স স্ট্যাডিজ (সিএনআরএস) নামে একটি আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা পরিচালিত এক গবেষণায় দেখা যায়, বাংলাদেশে অসংক্রামক রোগে মারা যায় বহু মানুষ। এদের বড় একটা অংশ হৃদরোগ, বহুমূত্র ও ক্যান্সারে আক্রান্ত। আগের চেয়ে শহর ও গ্রামে প্রক্রিয়াজাত খাবার গ্রহণের হার উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে।