বিবিএ এমবিএ করে ক্যারিয়ার

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭

বিবিএ এমবিএ করে ক্যারিয়ার

আবিদ আনোয়ার ১২:২৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১

print
বিবিএ এমবিএ করে ক্যারিয়ার

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অর্থনীতিতে কৃষি, শিল্প ও সেবা খাতে অধিকতর গুরুত্ব পাচ্ছে বাজারমুখী, বাস্তবভিত্তিক ও প্রযুক্তিনির্ভর মানব সম্পদ। আর এ মানব সম্পদকে মূলধনে পরিণত করার লক্ষে কারিগরি ও ভোকেশনাল শিক্ষার পাশাপাশি প্রযুক্তিনির্ভর ব্যবসায় প্রশাসন বিষয়ক শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা গুরুত্ব বহন করছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পদযাত্রা শুরুর প্রথম দিকেই ১৯৯৫ সালে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে ইউনিভার্সিটির ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৬ হাজার। তার মধ্যে রয়েছে ৪ শতাধিক বিদেশি ছাত্র-ছাত্রী। বর্তমানে ৩২০ জন পূর্ণকালীন ও খ-কালীন শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিয়োজিত রয়েছেন।

গুণগত মানসম্পন্ন শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ, আদর্শ ও দেশপ্রেমিক মানব সম্পদ তৈরিতে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি প্রশংসার দাবিদার। বিভিন্ন বিভাগ থেকে পাসকৃত ছাত্র-ছাত্রীরা চাকরির বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফলতার পরিচয় দিচ্ছেন। তবে তাদের মধ্যে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ থেকে পাস করা শিক্ষার্থীদের অবস্থান অনেক ঊর্ধ্বে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট স্ট্যাডিজ বিভাগের খ্যাতিমান অধ্যাপক ও অত্র ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. সেলিম ভূইয়ার নেতৃত্বে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ পরিচালিত হয়। এ অনুষদের পাঠদানের মাধ্যম হচ্ছে ইংরেজি। সেমিস্টার পদ্ধতিতে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয়। প্রতিটি সেমিস্টারে ছাত্র-ছাত্রীদের মিডটার্ম ও ফাইনাল পরীক্ষার জন্য কোর্স শিক্ষকরা পর্যাপ্ত কেসস্টাডি, চলমান বিষয়ের ওপর অ্যাসাইনমেন্ট, বাধ্যতামূলক ক্লাস পার্টিসিপেশন, কম্পিউটার ও ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। নিয়মিত ওয়ার্কসপ, সেমিনার ও সিম্পোজিয়ামে ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করে থাকেন। প্রতিবছর বিবিএ ও এমবিএ ফাইনাল সেমিস্টারে শিক্ষার্থীদের স্টাডি ট্যুর এবং বিভিন্ন সেমিস্টারে শিক্ষার্থীদের জন্য ইন্ডাস্ট্রিয়াল ভিজিটের ব্যবস্থা করা হয়। প্রতি ২ সেমিস্টার পর পর ভাইভা এবং ফাইনাল সেমিস্টারে ইন্টার্নশিপ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক। ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক কে এম মোহসীন জানান, এ ইউনিভার্সিটিতে ট্রাইমিস্টার পদ্ধতিতে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয়। প্রতিটি সেমিস্টারে ছাত্র-ছাত্রীদের মিডটার্ম ও ফাইনাল পরীক্ষার জন্য কোর্স শিক্ষকরা পর্যাপ্ত কেস স্টাডি, চলমান বিষয়ের ওপর অ্যাসাইনমেন্ট, বাধ্যতামূলক ক্লাস পার্টিসিপেশন, কম্পিউটার ও ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে থাকেন বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারমান ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি জানান, এখানে কোর্স ফি অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে কম হলেও আমরা উন্নতমানের শিক্ষাদান দিয়ে আসছি।

এছাড়াও নিয়মিত ওয়ার্কসপ, সেমিনার, সিম্পোজিয়ামে ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করে থাকে। প্রতিবছর বিবিএ ও এমবিএ ফাইনাল সেমিস্টারে শিক্ষার্থীদের স্টাডি ট্যুর এবং বিভিন্ন সেমিস্টারে শিক্ষার্থীদের জন্য ইন্ডাস্ট্রিয়াল ভিজিটের ব্যবস্থা করা হয়। বোর্ড অব ট্রাস্টিজের ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এস. কাদির পাটোয়ারী বলেন, ১৯৯৫ সালে ‘জ্ঞানই শক্তি’ স্লোগান কে সামনে রেখে এ ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এ স্লোগানের গুরুত্ব বহন করে পাঠ্যক্রম চালু রয়েছে।

এ বিশ্ববিদ্যালয়সহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণিজ্য অনুষদের শিক্ষকদের সমন্বয়ে যুগোপযোগী বিবিএ এবং এমবিএ প্রোগামের সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। কোর কোর্সের পাশাপাশি রয়েছে অনেকগুলো মেজর কোর্স। যেমন, মেজর ইন ম্যানেজমেন্ট, মেজর ইন হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট, মেজর ইন অ্যাকাউন্টিং ইনফরমেশন সিস্টেম, মেজর ইন ফিন্যান্স, মেজর ইন ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট, মেজর ইন মার্কেটিং এবং মেজর ইন ইনফরমেশন সিস্টেম। শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দ অনুযায়ী উল্লেখিত যেকোনো বিষয়ে লেখাপড়া করতে পারে। ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে নিয়মিত শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি চাকরিজীবী এবং বিএমএ ডিপ্লোমা পাসকৃত শিক্ষার্থীদের জন্য সান্ধ্যকালীন শিফট চালু রয়েছে। তাদের জন্য ৪ বছরের কোর্স ফি ৩ লাখ টাকা। দিবা শাখার জন্য কোর্স ফি ৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা। দু’বছরের এমবিএ ফি ১ লাখ ২০ টাকা। এক বছরের এমবিএ ফি ১ লাখ টাকা। বর্তমানে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগে প্রায় ১৫০০ ছাত্র-ছাত্রী অধ্যয়ন করছে। ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির নিজস্ব একটি ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি এডুকেশন সেল (আইকিউএসি) রয়েছে। এটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের অধীনে ‘হায়ার এডুকেশন কোয়ালিটি এনহেন্সমেন্ট প্রজেক্ট (হেকেপ)’ ও ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মধ্যে সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী ৭টি সেলফ অ্যাসেসমেন্ট কমিটি ১ জুলাই ২০১৫ হতে যথারীতি কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। ইতোমধ্যে ৭টি বিভাগের পিয়ার রিভিউয়ের কাজ দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞের দ্বারা সম্পন্ন করা হয়েছে। এখানে রয়েছে ৩টি সুসজ্জিত ও সমৃদ্ধ লাইব্রেরি, ইন্টারনেট ও ল্যাবরেটরি সুবিধা। বিস্তারিত তথ্যের জন্য যোগাযোগ : স্থায়ী ক্যাম্পাস, সাতারকুল, বাড্ডা, ঢাকা। ০১৯৩৯৮৫১০৬০ E-mail: admission@diu.net.bd, Website: www.diu.ac