৫০ বছরে পদার্পণ

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ | ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

৫০ বছরে পদার্পণ

জুবায়ের হাসান ২:১৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৭, ২০২১

print
৫০ বছরে পদার্পণ

বাংলাদেশের একমাত্র আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয়। ১২ জানুয়ারি খ্যাতি আর গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টি পদার্পণ করল ৫০ বছরে। ১৯৭১ সালের ঠিক এই দিনে আনুষ্ঠানিকভাবে এই বিশ্ববিদ্যালয়টির উদ্বোধন করা হয়। সুবর্ণ জয়ন্তীকে ঘিরে নানা জল্পনা-কল্পনা থাকলেও মহামারী করোনা পরিস্থিতির কারণে পূর্ণতা দানে সম্ভব হচ্ছে না। অন্যান্য বছরগুলোতে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকলেও এবারে ছিল না কোনো উৎসব অনুষ্ঠান। বিগত ৪৯ বছরের চাওয়া পাওয়া, না পাওয়া, প্রত্যাশা সবকিছু মিলিয়ে সুবর্ণ জয়ন্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়কে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থীর অভিব্যক্তি তুলে ধরা হলো। লিখেছেন জুবায়ের হাসান

নাজমুল হাসান
শিক্ষার্থী, ফার্মেসি বিভাগ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে এবার ব্যাপক আয়োজন করার কথা থাকলেও বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী মহামারীর দরুন পূর্বের পরিকল্পনা থেকে সরে আসতে হয়েছে। সেই মার্চ মাস থেকে বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ। শিক্ষার্থীরা আবার ক্যাম্পাসে ফিরে আসবে। তাদের পদচারণায় শহীদ মিনার, ক্যাফেটেরিয়া, টারজান, চৌরঙ্গী, ট্রান্সপোর্ট, সপ্তম ছায়ামঞ্চ, টিএসসি ও বটতলা আবার প্রাণের কোলাহলে মুখরিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয় ফিরে পাবে তার আগের রূপ। সবশেষে একটাই আশাবাদ রাখতে চাই, সুশিক্ষার যে মহান ব্রত নিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয় এক ঝাঁক মেধাবী শিক্ষার্থী নিয়ে ক্রমাগত সামনের দিকে এগিয়ে চলছে, সেই এগিয়ে চলা কল্যাণমুখী হোক।

তানবীন জাহান ফেরদৌসী ঔশী
শিক্ষার্থী, ফার্মেসি বিভাগ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

প্রতিবছর দিনটিকে ঘিরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকলের মাঝে এক অন্যরকম আনন্দ উচ্ছ্বাস কাজ করে। এবার করোনা মহামারীর কারণে পরিস্থিতি যদিও একটু ভিন্ন তবুও আনন্দের এতটুকুও কমতি নেই। পঞ্চাশেও চিরযৌবনা আমার প্রিয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। প্রিয় ক্যাম্পাসের প্রতিটি পরতে পরতে ছড়িয়ে আছে গভীর ভালোবাসা, আছে মায়ার টান। শিক্ষা, সংস্কৃতি, সৌন্দর্য কোনো কিছুতেই পিছিয়ে নেই দেশের অন্যতম সেরা এই বিদ্যাপীঠ। সকল বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে শিক্ষা, সংস্কৃতি, গবেষণা ও অন্যান্য গঠনমূলক কাজে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আরও অনেক সাফল্য অর্জন করবে দেশের প্রথম এবং একমাত্র এই আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়টি এটাই প্রত্যাশা।

মেহেদী হাসান তাজ
শিক্ষার্থী, বাংলা বিভাগ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয়

প্রতিষ্ঠার ৪৯ বছর পেরিয়ে পথচলার ৫০ বছরে পদার্পণ করল অফুরন্ত আলোর ঝরনাধারায় উৎসারিত ভালোবাসার জাবি। একজন বর্তমান শিক্ষার্থী হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবোজ্জ্বল অর্জনে পুলক অনুভব করি। প্রিয় ক্যাম্পাস, কতশত প্রিয় মুখের মুগ্ধতা! অতীতের ধারাবাহিকতায় বর্তমানেও দেশ এবং আন্তর্জাতিক পরিম-লে অবদান রেখে চলেছেন। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের তীর্থভূমি ও অতিথি পাখির অভয়াশ্রম ‘জাবি’ আমাকে বারবার মুগ্ধ করে। ঐতিহ্য, গৌরব ও সাফল্যের পঞ্চাশ বছরে প্রকৃতির অপার সৌন্দর্যের সঙ্গে লাল অবয়বে সবার প্রত্যাশায় শত বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে সাফল্যর অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখবে সেই প্রত্যাশা।

রিমা আক্তার
শিক্ষার্থী, ফার্মেসি বিভাগ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

আমি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী হতে পেরে খুবই আনন্দিত। মনোমুগ্ধকর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে আচ্ছাদিত ক্যাম্পাস থাকা সত্ত্বেও আবাসন সংকট, সেশনজট, রাজনৈতিক বিবাদ আমাদের দেখিয়ে দেয় অপ্রাপ্তির বিষণ্ণতা।

সকল অপ্রাপ্তির ছায়া ছাপিয়ে শিক্ষা, গবেষণা, সংস্কৃতিতে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভাবনীয় এবং প্রশংসনীয় অবদান রেখেছে সবসময়। খুব শীঘ্রই সকল অপ্রাপ্তি পূর্ণতা পাবে, সকল বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে আমার প্রিয় জাবির জয়ধ্বনি ছড়িয়ে পড়বে বিশ্বব্যাপী ইনশাআল্লাহ। এই কামনা করে আবারো জন্মদিনের শুভেচ্ছা ও অফুরন্ত ভালোবাসা প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়।