ডিআইইউতে ডিওসিইএইচ চালু

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১ | ১৫ মাঘ ১৪২৭

ক্যারিয়ার গঠনে

ডিআইইউতে ডিওসিইএইচ চালু

আনোয়ার হাবিব কাজল ২:৩৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

print
ডিআইইউতে ডিওসিইএইচ চালু

বাংলাদেশের কালিনারি আর্টস এবং হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার লক্ষ্যে ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া ও সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের পরামর্শে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে সম্প্রতি ‘ড্যাফোডিল অক্সফোর্ড সেন্টার অব এক্সিলেন্স ইন হসপিটালিটি’ (ডিওসিইএইচ) চালু হয়েছে। বাংলাদেশের ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ডিআইইউ) এবং অক্সফোর্ড কালচারাল কালেক্টিভ’র যৌথ উদ্যোগে এ সেন্টার পরিচালিত হবে যেখানে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ইন্ডাস্ট্রির বিভিন্ন বিষয় পড়ানো হবে।

এর ফলে এ প্রতিষ্ঠান থেকে পাস করা গ্র্যাজুয়েটরা বাংলাদেশে তাদের ক্যারিয়ার গঠনের পাশাপাশি যুক্তরাজ্যসহ বিশে^র অন্যান্য দেশে পরবর্তীতে উচ্চতর শিক্ষা ও কর্মসংস্থানের সুযোগ পাবে। ‘ডিওসিইএইচ’ এর উদ্দেশ্য হচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল হসপিটালিটি ইন্ডাস্ট্রির জন্য মানসম্মত সফল ও দক্ষতাপূর্ণ গ্র্যাজুয়েট তৈরির বিশ্বমানের নির্ভরযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠা।

এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার অনন্য ধরন হবে আন্তর্জাতিক আতিথেয়তা ব্যবস্থাপনা এবং রন্ধন শিল্পখাতের জন্য প্রয়োজনীয় নিবিড় তত্ত্বীয় পড়াশোনার পাশাপাশি পরীক্ষামূলক, ব্যবহারিক ও হাতে-কলমে শিক্ষা নিশ্চিত করা।

গুণগত ও মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতের পাশাপাশি ‘ডিওসিইএইচ’ আন্তর্জাতিক অঙ্গনের অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে অংশীদারিত্বমূলক নিবিড় সর্ম্পকের সুবাদে কাজের সম্পর্ক সৃষ্টি, শীর্ষস্থানীয় দায়িত্বশীল নেতৃত্ব সৃষ্টি এবং সারা বিশ্বে বাংলাদেশি আতিথেয়তা এবং রন্ধন শিল্পের ইতিবাচক মনোভাব প্রসারের অনন্য ক্ষেত্র হিসেবেও সুপরিচিতি লাভ করবে। ‘ড্যাফোডিল অক্সফোর্ড সেন্টার অব এক্সিলেন্স ইন হসপিটালিটি (ডিওসিইএইচ)’ যুক্তরাজ্যের সঙ্গে ঢাকাভিত্তিক শিক্ষার্থীদের কাজের অভিজ্ঞতার সুযোগ, গ্র্যাজুয়েটদের জন্য কর্মসংস্থান এবং উদ্যোক্তা হতে আগ্রহীদের জন্য শক্তিশালী একটি সেতুবন্ধন স্থাপনের উপায় খুঁজছে।

এর লক্ষ্য হচ্ছে সুশিক্ষিত, পেশাদার ও দক্ষ এবং যারা সফল ক্যারিয়ার গড়তে অনুপ্রাণিত এমন স্টাফ সরবরাহের মাধ্যমে যুক্তরাজ্যের হসপিটালিটি ইন্ডাস্ট্রির (বিশেষ করে বাংলাদেশি ও ভারতীয় রেস্টুরেন্ট সেক্টরে) চলমান পেশাদারিত্বে অবদান রাখা। ‘ডিওসিইএইচ’ শিক্ষার কার্যক্রম শুধুমাত্র কালিনারি এবং হসপিটালিটির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না।

এই ইনস্টিটিউট আরও কার্যক্রম থাকবে টিচার ট্রেনিং প্রোগ্রাম, ফুড সেফটি অ্যান্ড হাইজিন প্রোগ্রাম, সুপার ভাইজারদের জন্য স্কেলিং প্রোগ্রাম। গত ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ড্যাফোডিল অক্সফোর্ড সেন্টার অব এক্সিলেন্স ইন হসপিটালিটি (ডিওসিইএইচ)’এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয় এবং এ উপলক্ষে দিনব্যাপী ‘ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল সিম্পোজিয়াম অন হসপিটালিটি’ শীর্ষক সিম্পোজিয়ামেরও আয়োজন করা হয়।

এর উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক সিনিয়র উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ, এমপি, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান, বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাই কমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন-ডিকসন, ব্রিটিশ পার্লামেন্ট (হাউজ অব লর্ডস) এর সদস্য ব্যারোনাস মনজিলা পলাউদ্দিন, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জাবেদ আহমেদ এবং বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান রাম চন্দ্র দাস।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান শিক্ষা ক্ষেত্রে কালিনারি আর্টস এবং হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টকে কেন আরও বেশি গুরুত্ব দেওয়া উচিত এবং ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় কিভাবে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি এডুকেশনকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করছে সে বিষয়ে তার সুদূর প্রসারী বিস্তারিত তুলে ধরেন।