বন্ধুত্বের বন্ধনে আয়নিক ১১

ঢাকা, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০ | ৩১ আষাঢ় ১৪২৭

বন্ধুত্বের বন্ধনে আয়নিক ১১

তিতলি দাস ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ০১, ২০২০

print
বন্ধুত্বের বন্ধনে আয়নিক ১১

নতুনের আগমনের পালাবদলে সব কিছুই ধীরে ধীরে হয়ে ওঠে পুরনো। শুরুটা পরিণত হয় শেষে। বলছি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (২০১৬-২০১৭) শিক্ষাবর্ষের ১১তম ব্যাচ আয়নিক ১১ এর কথা। ২০১৭ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি যাত্রা শুরু করে ব্যাচটি।

আজ তারা পৌঁছে গেছে শিক্ষাবর্ষের শেষ বর্ষে। যে দিনটির মধ্য দিয়ে তারা নিজেদের স্বপ্নের জীবন শুরু করেছিল সেই দিনটি তৃতীয় বারের মতো পালন করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় সব বিভাগের অংশগ্রহণে গত ১২  ফেব্রুয়ারি বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে তারা দিনটি পালন করে। প্রত্যেকেই গাহি সাম্যের গান মঞ্চের প্রাঙ্গণে সাদা টি-শার্ট পরে হাসি আড্ডায় মেতে ওঠে, একে অপরের টি-শার্টে মনের অগোছালো কথাগুলো লিখে রঙিন কালি দিয়ে।

একে অপরকে আলতো ছোঁয়ায় বিভিন্ন রঙের আবির লাগিয়ে রঙিন করে তুলে দিনটিকে। বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় ঘুরতে ঘুরতে তারা পেত্নীতলা, সিঙ্গেল চত্বর, বারামখানা, প্রশাসনিক ভবন, জয়বাংলা ভাস্কর্য পার করে সামাজিক বিজ্ঞান ও বিবিএ ভবনের সামনে মিলিত হয়। সন্ধ্যায় আয়োজন করে তারা এক বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। কেক কাটার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্ব শুরু হয়। এরপর নিজেদের অংশগ্রহণে তারা আয়োজন করে নাচ, গান, কবিতা ও র‌্যাম্প শো’র।

আয়নিক ১১ এর  বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী সালমান বলেন, দ্রুতই যেন আমাদের সময় চলে যাচ্ছে। যে দিনটির মধ্য দিয়ে আমরা এই সুন্দর জীবনে প্রবেশ করেছিলাম সেই দিনটিকে স্মরণ করে রাখার জন্যই এই ব্যাচ ডে পালন করা।