প্রকৃতির সান্নিধ্যে আমরা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৬

প্রকৃতির সান্নিধ্যে আমরা

আবির মাহমুদ খবির ১২:৫৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২০

print
প্রকৃতির সান্নিধ্যে আমরা

আমরা ১২৭ ছাত্রছাত্রী রওনা দিয়েছিলাম বিকেল ৫টার দিকে। আমাদের সঙ্গে ছিলেন ইতিহাস বিভাগের শ্রদ্ধেয় শাকির স্যার এবং মাসুদা পারভীন ম্যাম। ভ্রমণটি ছিল মূলত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের আমাদের গন্তব্য কক্সবাজার, সেন্টমার্টিন ও মহেশখালী। প্রথমবারের মতো আমি কোনো শিক্ষা সফরে যাচ্ছি ভেবে আমার খুব আনন্দ হচ্ছিল। আমার মতো আরও অনেকেই ছিল, তাই স্বাভাবিকভাবে আমাদের আবেগ ছিল অন্যের চেয়ে অনেক বেশি। বাস ছাড়ার পর গাড়িতে আমরা বন্ধু-বান্ধবীরা অনেক মজা করি। গাড়িতে বসেই রাতের খাবার খাই। সবটাই নতুন অভিজ্ঞতা।

জীবনে প্রথম আমি এত দীর্ঘ পথ অতিক্রম করতে যাচ্ছি, তাই অনুভূতিটা ছিল অন্যরকম। সেন্টমার্টিনে পৌঁছিয়ে আমরা সেখানকার হোটেলে উঠি। পরে প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনের সমুদ্র সৈকতে হইহুল্লুড় করে গোসল করি। সমুদ্রের লোনা পানি আমাদের বিমোহিত করে। ঐদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত সমুদ্রবিলাস করে সন্ধ্যায় ফিরে যাই হোটেলে। পরের দিন আমরা রওনা দিই ছেড়াদ্বীপের উদ্দেশ্যে। সত্যিই অসাধারণ সৌন্দর্যের সমারোহ ছেড়াদ্বীপে।

সেখানে খুব ভালো কিছু সময় কাটিয়ে আবার ফিরে যাই সেন্টমার্টিনে। ফেরার সময় কেন যেন মনটা খুব খারাপ হয়ে গেল। তখন খুব করে মনে হচ্ছিল আমি সমুদ্রের মায়ায় পড়ে গেছি। কিন্তু ফিরে তো আসতেই হবে। সত্যি বলতে ভ্রমণটি আমার জীবনে সবচেয়ে উপভোগ্য ছিল। স্মৃতি হয়ে থাকবে আজীবন।