উষ্ণতার ছোঁয়া নিয়ে তারুণ্য

ঢাকা, শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১১ আশ্বিন ১৪২৭

উষ্ণতার ছোঁয়া নিয়ে তারুণ্য

মুরতুজা হাসান ১২:২৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯

print
উষ্ণতার ছোঁয়া নিয়ে তারুণ্য

তীব্র শীতে অসহায় ও দুস্থ মানুষগুলো শীতল আবহাওয়া থেকে নিজেদের রক্ষা করতে উষ্ণতার সন্ধানে যেমন ব্যস্ত রয়েছে ঠিক তেমনি সারা দেশের মতো কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ অঞ্চলেও বইছে প্রচণ্ড শৈত্যপ্রবাহ। শীতে অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে সামান্য উষ্ণতার ছোঁয়া দিতে প্রায় দেড়শ’ শীতার্ত পরিবারের কাছে শীতবস্ত্র নিয়ে ছুটে গেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘তারুণ্য’।

‘অবারিত সম্ভাবনা নিয়ে জাগ্রত তারুণ্য’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা থানার ঝাউদিয়া আবাসন প্রাঙ্গণে প্রায় ১১৫টি, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের আশপাশে প্রায় ২০টি এবং কুষ্টিয়ার প্রায় ১৫টি ভাসমান শীতার্ত পরিবারের মাঝে ২৩ ডিসেম্বর এ শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন। কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ শহরে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের রুমে রুমে গিয়ে শীতার্ত মানুষদের অসহায়ত্বের কথা জানান এ তরুণরা। তারুণ্য প্রতি বছর শীতের মৌসুমে এ শীতবস্ত্র বিতরণ করে থাকেন।

এ বিষয়ে তারুণ্যের সাধারণ সম্পাদক সাদিয়া আফরিন খান বলেন, ‘ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তারুণ্য প্রতিষ্ঠাকাল থেকেই নানা ধরনের জনকল্যাণমূলক কাজ করে আসছে। আর আমাদের এসব উদ্যোগের প্রতি সমর্থন জানিয়ে যেসব ব্যক্তি ও সংগঠন সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন আপনাদের জানাই আন্তরিক ভালোবাসা।’

তারুণ্যের সভাপতি শেখ রাইয়ান উদ্দীন বলেন, মানবিকতা মানুষের স্বকীয় বৈশিষ্ট্য। এই মানবিকবোধ থেকেই তারুণ্য প্রতি বছর শীতবস্ত্র বিতরণ করে থাকে। বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার জন্য তারুণ্য কাজ করে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অরাজনৈতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘তারুণ্য’ এটি ২০০৯ সালের ২৯ জুলাই প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর থেকে বিভিন্ন ধরনের জনকল্যাণমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে।