কুবিতে ডিবেটর সার্চ প্রতিযোগিতা

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

কুবিতে ডিবেটর সার্চ প্রতিযোগিতা

শাহাদাত বিপ্লব ১০:৩১ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৯

print
কুবিতে ডিবেটর সার্চ প্রতিযোগিতা

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিবেটর সার্চ প্রতিযোগিতার ফাইনালে গত রোববার অনুষ্ঠিত হয় । বিতর্কের বিষয় ছিল, ‘এই সংসদ মনে করে যে, সংকট স্বাস্থ্যসেবার নয় বরং স্বাস্থ্য সচেতনতার।’ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি আয়োজিত সংসদীয় এ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ১৫টি বিভাগ অংশগ্রহণ করে।

প্রতিযোগিতার অন্যতম উদ্দেশ্য ছিল নবীন বিতার্কিক খুঁজে বের করা। প্রতি বছরই ডিবেটিং সোসাইটি এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে। এ প্রতিযোগিতায় প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পায় শুধুমাত্র প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা।

এবারের প্রতিযোগিতার ফাইনালে সাংবাদিকতা বিভাগকে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জিতে নেয় আইন বিভাগ। অপরাজিত থেকেই তারা শিরোপা জিতে নেন। প্রতিযোগীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্চে একেবারেই নবীন। তাইতো শিরোপা জয়ের প্রাপ্তিটা হয়তো একটু বেশিই। দলগত পরিশ্রম আর মেধার গুণেই তাদের সফলতা। ৪র্থ ডিবেটর সার্চ প্রোগ্রামে আইন বিভাগকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান অপু। ছোট থেকেই বিতর্কের প্রতি ভালোবাসা ছিল তার।

পুরো প্রতিযোগিতায় অপুকে সঙ্গ দিয়েছেন দ্বিতীয় বর্ষের ধ্রুব চন্দ্র বিশ্বাস এবং প্রথম বর্ষের আহমেদ উল্ল্যাহ রাফী। ধ্রুব’র স্কুল-কলেজে বিতর্ক করার লোভ থাকলেও প্রাতিষ্ঠানিক সুবিধা না থাকায় বিতর্কে অংশগ্রহণ করতে পারেননি তিনি।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে আর অপেক্ষা করতে হয়নি। শুরুতেই যুক্ত হয়েছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটির সঙ্গে। জীবনের প্রথম কোনো প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেই পেলেন সাফল্যের দেখা। কিছু সময়ের জন্য হলেও সংসদে প্রতিনিধিত্ব করাকে সৌভাগ্য বলেই মনে করছেন তিনি। তিনি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, ‘যখন প্রধানমন্ত্রী কিংবা মন্ত্রী হিসেবে সম্বোধন করা হয় তখন সত্যিই অদ্ভুত এক ভালো লাগা কাজ করে। অন্তত এক ঘণ্টার জন্য হলেও সংসদে প্রতিনিধিত্ব করার স্বাদ পাচ্ছি।’

দলের তিনজনের লক্ষ্যই এক। স্বপ্ন দেখেন আইনজীবী হওয়ার। তবে বিতর্কের ভালোবাসায় সিক্ত থাকতে চান সবাই। যে যেখানেই থাকেন তাদের উদ্দেশ্য, যুক্তির মাধ্যমে দেশের ইতিবাচক দিকগুলো বিশ্বের দরবারে তুলে ধরা।