সাইকেল চালিয়ে ৬৪ জেলা ভ্রমণ

ঢাকা, বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯ | ৫ আষাঢ় ১৪২৬

সাইকেল চালিয়ে ৬৪ জেলা ভ্রমণ

সিনজাত রহমান সানি ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, জুন ০৯, ২০১৯

print
সাইকেল চালিয়ে ৬৪ জেলা ভ্রমণ

দেশ ভ্রমণের নেশা তাকে টেনে নিয়ে যায় প্রকৃতির অবারিত মুক্তাঙ্গনে। অজানাকে জানার জন্য, অদেখাকে দেখার জন্য; আমাদের পরিচিত গণ্ডির বাইরে অপরিচিত জগৎকে দেখার জন্য-অন্তরের আকুল আগ্রহে আনন্দ অনুভব করি। তেমনই একজন ভ্রমণপিপাসু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আতিক আশিক ঘুরে বেড়িয়েছেন দেশের ৬৪ জেলাতে।

৬৪ জেলা ঘুরে দেখলাম সাইকেল চালিয়ে...

বুদ্ধি হওয়ার পর থেকে শুনি, বাংলার অপরূপ সৌন্দর্যে ৬৪ জেলার কথা, আজ ঘুরে দেখলাম তার চেহারা, পড়লাম তার ইতিহাস, দেখলাম বাংলার কোথায় কি আছে। ভৌগোলিক বৈচিত্র্য দেখার প্রবল উৎসাহে আমার সৌন্দর্যপিপাসু মন ছুটে বেড়িয়েছে এক জেলা থেকে অন্য জেলায়। মধুপুর বনাঞ্চল পেরিয়ে উত্তরবঙ্গের শুষ্ক নদীর বুকে ধান চাষ যেমন দেখেছি তেমনই দেখেছি দক্ষিণাঞ্চলের নদীগুলোর ভরা যৌবন, টইটম্বুর দুই তীরে সুন্দরী গেওয়া কেওড়া গোলপাতার রাজত্ব। রূপ সুধা পান করতে সাইকেল নিয়ে ভৌগোলিক বৈচিত্র্যের পথে নেমেছিলাম মোটরসাইকেল যেহেতু নেই তাই খরচ বিবেচনায় সাইকেল নিয়েই যাত্রা শুরু করেছিলাম।

যাত্রাটা যেভাবে শুরু করলেন?

সাইকেল কিনেই ময়মনসিংহ জেলা থেকে শুরু এরপর বিভিন্ন সময়ে অবসরে ছুটিতে নাটোর, রাজশাহীসহ আশপাশের জেলাগুলোতে ভ্রমণ করি। ফেব্রুয়ারিতে মুজিবনগর, টুঙ্গিপাড়া, ষাট গম্বুজ মসজিদসহ বরিশাল, খুলনা, ভোলা, নোয়াখালী, রাঙ্গামাটি, কক্সবাজার এবং সবশেষে নেত্রকোনা, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ দিয়ে ৬৪ জেলার ভৌগোলিক বৈচিত্র্যে সৌন্দর্যপিপাসু আমার মন ছুটে বেড়িয়েছে দেশের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে।

৬৪ জেলা ভ্রমণের পথে সবচেয়ে স্মরণীয় ঘটনা কী ছিল?
রাঙ্গামাটি থেকে কাপ্তাই লেক ধরে পাহাড়ের পর পাহাড় টপকিয়ে বান্দরবান যাওয়া, মেরিন ড্রাইভ রোডের একপাশে নীল জলরাশি অপর পাশে বিস্তৃত পাহাড় চূড়ায় মেঘের ছড়াছড়ি আমার স্মরণীয় ঘটনাগুলোর মধ্যে অন্যতম।

বিচিত্র কোনো অভিজ্ঞতা থাকলে বলুন?
রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা ছিল পাহাড়ি অঞ্চলে যেমন রাঙ্গামাটির পথে অথবা কাপ্তাই লিংক রোড পেরিয়ে বান্দরবান যাওয়ার পথে আদিবাসীদের চোখের চাহনি দেখে।
মনে হচ্ছিল, আমাকে বাঙালি দেখে সন্দেহের চোখে তাকাচ্ছিল তবুও পাহাড়ের সবুজের মতোই উপজাতি ভাইদের জীবন পদ্ধতির বৈচিত্র্য আমাকে মুগ্ধ করে।