স্পোর্টস উইক ঘিরে উৎসব

ঢাকা, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

স্পোর্টস উইক ঘিরে উৎসব

এস আহমেদ ফাহিম
🕐 ২:০৬ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০৭, ২০২২

স্পোর্টস উইক ঘিরে উৎসব

বিশ্ববিদ্যালয় জীবন মানে ক্লাস, পরীক্ষা, ল্যাব, গবেষণা। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রমের একঘেয়েমিতা দূর করে শারীরিক ও মানসিক বিকাশের পাশাপাশি আনন্দ ছড়িয়ে দিতে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) অণুজীববিজ্ঞান বিভাগে আয়োজন করা হয় স্পোর্টস উইক ২০২২।

 

করোনা মহামারীতে দীর্ঘ বিরতির পর আয়োজিত এই স্পোর্টস উইক গত ৩১ জুলাই থেকে শুরু হয় এবং ২ আগস্ট পুরষ্কার বিতরণীর মধ্যদিয়ে সমাপ্তি ঘটে। বিভাগের বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থী-শিক্ষকের অংশগ্রহণে এই আয়োজন উৎসবে পরিণত হয়। উৎসবমুখর এ আয়োজন চলে ৩ দিনব্যাপী। এ আয়োজনে ৮টি ইভেন্টে অংশগ্রহণ করে নিজেদের পারদর্শীতা ও দক্ষতার স্বাক্ষর রাখেন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

ফুটবল টুর্নামেন্ট, দাবা, ক্যারাম, লুডু, ডার্টস, কার্ড, টেবিল টেনিস ও পিলো পাসিং দিয়ে সাজানো হয় এই আয়োজন। এছাড়াও ৮টি ইভেন্টে অংশগ্রহণ করে লটারিতে অংশগ্রহণের সুযোগ পান বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। উৎসবমুখর আয়োজনকে আরো প্রাণবন্ত করতে ৮ টি ইভেন্টের চ্যাম্পিয়ন, রানার আপ এবং লটারিতে বিজয়ী ৫ জনকে পুরষ্কৃত করা হয়।

পুরস্কার বিতরণীতে উপস্থিত ছিলেন নোবিপ্রবির উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জাকারিয়া, নোবিপ্রবির অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ফিরোজ আহমেদ, সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আরিফুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক সঞ্জয় কুমার মুখার্জীসহ বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ। পুরষ্কার বিতরণীতে সঞ্চালনায় ছিলেন বিভাগের ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী ফারহানা মনসুর প্রিয়া।

এছাড়াও বিভাগের বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরাও উপস্থিত ছিলেন। লুডু (একক) ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন হয় বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী অংকন এবং রানার আপ হয় প্রভাষক সুমিতা রাণী সাহা। লুডু দ্বৈততে ফাইনালে ২০২০-২১ সেশনের শিক্ষার্থী মাহমুদুল ও রিফাকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন বিভাগের ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী অর্পা ও মিতু।

দাবার ফাইনালে বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী দিপাঞ্জন সরকারকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয় ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী মো.রিদয় আহমেদ। কার্ডের ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন হয় ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী অংকন এবং রানার আপ বিভাগের প্রভাষক সুমিতা রাণী সাহা। ক্যারাম একক(ছেলে) ফাইনালে বিভাগের প্রভাষক নিক্কণ সরকারকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয় সহকারী অধ্যাপক সঞ্জয় কুমার মুখার্জী।

 
Electronic Paper