সবুজে মোড়ানো ক্যাম্পাস

ঢাকা, শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

সবুজে মোড়ানো ক্যাম্পাস

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা
🕐 ২:১৪ অপরাহ্ণ, জুন ০৬, ২০২২

সবুজে মোড়ানো ক্যাম্পাস

রাজধানীর মালিবাগ এলাকায় অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আবুজর গিফারী কলেজের আঙিনার যেদিকে চোখ যায় সেদিকেই দেখা মেলে সবুজ আর সবুজতার অরণ্য। কলেজটি ঢাকা শহরের কেন্দ্রস্থল ও সিটি কর্পোরেশন এলাকায় অবস্থিত হলেও ক্যাম্পাসের অপরূপ প্রাকৃতিক এই সৌন্দর্য শিক্ষার্থীদের বিমোহিত করে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে থাকা আবুজর গিফারী কলেজ ঢাকা শহরের অন্যতম একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

এখানে আশেপাশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চেয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দিক দিয়ে অনেক এগিয়ে। প্রতিষ্ঠানটি ১৯৬৭ সালের আত্মপ্রকাশ করে। এ প্রাচীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি সবুজে পরিপূর্ণ তো বটেই। কারণ এমন পরিবেশ আশপাশের কোন কলেজ গুলোতে সচরাচর দেখা মেলে না। এ আবুজর গিফারী কলেজের ক্যাম্পাসে প্রবেশ করলেই দেখা যাবে অপরূপ এক সবুজের অরণ্য। মুলত সবুজের সমারোহ শুরু এখান থেকেই।

প্রতিষ্ঠানটির এক পাশে রয়েছে শহীদ মিনার। অন্য পাশে বিরাট মাঠ। শিক্ষার্থীরা ক্লাস শেষে তাদের বন্ধু-বান্ধবিদের নিয়ে মিনারে আড্ডায় মাতে, অন্যদিকে শিক্ষার্থীরা খেলাধুলায় মেতে উঠে। শুরু তাই নয়, কলেজটি ঘিরে প্রতিটি পৃথক পৃথক স্থান জুড়ে রয়েছে নানান প্রজাতির গাছ। কলেজের চারপাশে সবুজ অরণ্য আর প্রকৃতি যেন তার সৌন্দর্যকে কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। এ কলেজে শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ার পাশাপাশি আড্ডা, গান, বিতর্ক, নাটক, খেলাধুলা, সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আলোচনায় মেতে উঠেন। রাতেও বিভিন্ন স্থানে চলে খেলাধুলা আর আড্ডা। এসবে ক্যাম্পাস মাতিয়ে রাখেন তারা। কেউ ক্যাম্পাসে একবার আসলে সে সবুজের প্রেমে পড়তে বাধ্য হবে।

২০২০-২১ সেশনের শিক্ষার্থী আশিক বলেন, আমরা প্রথম এসে সবুজ শ্যামল ক্যাম্পাসের প্রেমে পড়েছিলাম। এই ক্যাম্পাসে জড়িয়ে আছে ভালোবাসা। তাই যখনি অবসর পাই তখনি আড্ডা দিতে চলে আসি। সবার একটাই স্বপ্ন আগামীর পথচলা সবুজের মতো সৌন্দর্যময় ও বিশাল হোক।

আবুজর গিফারী কলেজের একাউন্টটিংয়ের বিভাগের শিক্ষিকা হাজেরা তুল কোবরা সুইটি বলেন, ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য আমাদের মুগ্ধ করে। সারাদিনের ক্লান্তি শেষে যখন ক্যাম্পাসের সবুজ অরণ্য দেখতে পাই তখন সব ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। আমাদের শিক্ষার্থীরাও সবুজের সৌন্দর্যকে উপভোগ করে। তারা খেলাধুলার পাশাপাশি ক্যাম্পাসে নিয়মিত পড়াশোনাতেও মেতে উঠে। তিনি মনে করেন, প্রতিটি কলেজে ক্যাম্পাস থাকলে শিক্ষার্থীদের মন সতেজ হবে।

 
Electronic Paper