নুসরাতের বিচার ও দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র

ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নুসরাতের বিচার ও দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র

ববি হাজ্জাজ ১০:০১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০১৯

print
নুসরাতের বিচার ও দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র

নুসরাত হত্যার বিচারের রায়ের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির অধ্যায় উন্মোচন করলেন মহামান্য আদালত। যে বর্বরতার সঙ্গে তাকে হত্যা করা হয় তার প্রেক্ষিতে সবচেয়ে নির্মম শাস্তি দেওয়া ছাড়া আদালতের আর কোনো বিকল্পও হয়তো ছিল না। একজন শিক্ষক যখন নোংরা অপকর্মে লিপ্ত হয়, তখন সমগ্র সমাজের ওপর আঘাত হানে।

এখন আমরা শুধু দেখতে চাই যেন, অপরাধীরা আবার শাস্তি থেকে আড়ালেই মুক্তি না পেয়ে যায়। আইন প্রণয়নকারী বাহিনীর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিও দেখতে চাই। আমরা অনেকবারই দেখেছি যে, সরকারি দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত সব অপরাধীরাই খুব চতুরতার সঙ্গে শাস্তি থেকে রেহাই পেয়ে যায়।

অন্যদিকে ভোলায় ঘটে যাওয়া ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা নিয়ে মর্মান্তিক ঘটনা এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উন্মত্ত জনগণের ওপর গুলি ছুড়ে চারজনের মৃত্যুর পিছে লুকিয়ে থাকা কোনো তথ্য এখনো উদ্ঘাটন করতে পারেনি সরকারের স্বররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এরই মধ্যে কয়েকজন বিজ্ঞ সাংবাদিক আঙুল তুলছেন ভোলা জেলার কোনো এক প্রভাবশালী সরকারদলীয় নেতার দিকে। বলা হচ্ছে, তার সায় থাকায় এই ঘটনা ঘটে। গত দুই দিনে আবার দুই জন নামি ব্যক্তির কাছ থেকে দুই ভিন্ন দেশ সম্বন্ধে দুই রকম আলোকপাত দেখতে পেলাম।

একদিকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরী বললেন, ভোলায় ঘটে যাওয়া ঘটনায় ভারতের গোয়েন্দা বাহিনী ‘র’-এর পুরোপুরি হাত আছে। এখানে একটু যোগ করে বলি, মোদি সরকারের হিন্দু জাতীয়তাবাদ ব্যবহার করে পশ্চিম বাংলায় নির্বাচনে জিততে হলে বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক দ্বন্দ্ব অত্যন্ত সহযোগী হতে পারে। মোদি সাহেব এর আগেও তার নিজের রাষ্ট্র গুজরাটে সাম্প্রদায়িক দ্বন্দ্ব ব্যবহার করতে ছাড়েননি। সেই কারণে এক সময় যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র তার ভিসা বাতিল করে দিয়েছিল।

দ্বিতীয় নামি ব্যক্তি গতকাল তরুণদের নিয়ে এক বিশেষ অনুষ্ঠানে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র আমাদের সার্বভৌমত্বের ওপর হাত দিতে চেষ্টা করছে। যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস নাকি আমাদের দেশের ভোটারবিহীন নির্বাচনে বিপুল পরিমাণ ভোটে নির্বাচিত গণতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে চক্রান্তে লিপ্ত। তাই হয়তো সেই নামি ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রেই বসবাস করেন, যেন একদম ভেতর থেকে খবর রাখতে পারেন তারা কখন কী ধরনের চক্রান্ত সাজাচ্ছেন।

ববি হাজ্জাজ
রাজনীতিবিদ