বিটিভির ভারত প্রবেশ আমাদের অর্জন

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ২ আশ্বিন ১৪২৬

বিটিভির ভারত প্রবেশ আমাদের অর্জন

খোলা কাগজ ডেস্ক ১০:০৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৯

print
বিটিভির ভারত প্রবেশ আমাদের অর্জন

আমরা যে বিটিভি দেখি সেই বিটিভি ভারত দেখবে না। সেখানে বাতাবি লেবুর চাষ, কৃষকের স্বাবলম্বী হওয়ার গল্প শোনানোর কথা না। ভারতে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নের গল্প শুনিয়ে লাভ নাই তাই সেখানে সেটা দেখানোর কথাও না। সেই বিটিভির অনুষ্ঠান আপনার-আমার বা দেশের চেনাজানা বিটিভির অনুষ্ঠান না।

ফেসবুকে অনেককে বলতে দেখছি, এই প্রথম আমরা নাকি অচল মাল বিদেশে রপ্তানি করলাম। বিটিভিকে এই অচল মাল আখ্যা যতটা না বাস্তবতা থেকে বা জেনেবুঝে তারচেয়ে বেশি গড্ডলিকা প্রবাহে গা ভাসানো।

আমাদের দেশে ভারতের অনেক টেলিভিশন চ্যানেল। ফ্রি চ্যানেল, পেইড চ্যানেল নানা কিসিমের। সেই সব চ্যানেলের কয়টা দেখার মতো? ভারতের রাষ্ট্রীয় যে চ্যানেল দূরদর্শন সেটাও কি দেখার মতো কোনো চ্যানেল? দেখি কেউ? মেগা সিরিয়ালভিত্তিক যেসব ভারতীয় বাংলা চ্যানেল সেগুলোতে কী দেখানো হয়? পারিবারিক কলহ, কুটনামি, ধর্মপালন ছাড়া অধিকাংশ ক্ষেত্রে আর কী আছে ওখানে? ওগুলো কি মানসম্মত কিছু?

তবু ওসবের দর্শক এখানে অনেক। তাদের দর্শক প্রাপ্তির কারণ মূলত কলহ-কুটনামি উপভোগ করাটা মানুষের সহজাত অভ্যাসের অংশ প্রায়। উপভোগ্য বলে আগ্রহ বেশি, তাই ওসবের দর্শকও বেশি। বছরের পর বছর ধরে চলা ওসব বেশির ভাগ মেগাসিরিয়াল থেকে কী প্রাপ্তি আমাদের? কিছুই না। বিদেশি চ্যানেল আর টাকা খরচে দেখছি বলে অবসরটা ওখানে দিয়ে বসে আছে অনেকেই। এখানে অবশ্য খেলাধুলা বা জীববৈচিত্র্য সম্পর্কিত প্রামাণ্য অনুষ্ঠান প্রচারের চ্যানেলগুলোকে আলাদা হিসেবে ধরছি।

বিটিভি ভারতে প্রবেশ করেছে-এটা নিঃসন্দেহে আমাদের অর্জন। এতদিন আমরা হাহুতাস করেছি ভারতে আমাদের চ্যানেলগুলোর প্রবেশের অনুমতি নাই বলে। এখন যখন আমরা প্রবেশ করতে পেরেছি তখন একে আমরা অর্জন হিসেবে না দেখে কেন এভাবে অবমূল্যায়নকর মন্তব্য করছি?

হ্যাঁ, বিটিভি নিয়ে আমাদের অনেকের ক্ষোভ, হাহাকার, দীর্ঘশ্বাস, অপ্রাপ্তির বেদনা-অনেক কিছুই থাকতে পারে। তবে আমাদের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বিটিভি যখন দেশের বাইরের আকাশে প্রবেশ করেছে তখন তাকে এভাবে মূল্যায়ন করা ঠিক নয়। আমাদের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বিটিভি যখন দেশসীমা অতিক্রম করে বিদেশের আকাশে জায়গা পেয়েছে তখন একে এভাবে অবমূল্যায়ন নয়, সম্মানের চোখে দেখাই দরকার! রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের অর্জন তো রাষ্ট্রেরই। এখানে আমাদের গর্ব হবে না কেন?

 

কবির য়াহমদ
সাংবাদিক