সংবাদকর্মী হিসেবে আপনাকে অভিনন্দন জানাতে পারছি না

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ | ৩০ কার্তিক ১৪২৫

সংবাদকর্মী হিসেবে আপনাকে অভিনন্দন জানাতে পারছি না

খোলা কাগজ ডেস্ক ৬:৩৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৫, ২০১৮

print
সংবাদকর্মী হিসেবে আপনাকে অভিনন্দন জানাতে পারছি না

সাংবাদিকতাকে বলা হয়ে থাকে রাষ্ট্রের চতুর্থ একটি স্তম্ভ। সাংবাদিকতার সঠিক চর্চা হলে রাষ্ট্রের অনেক কিছুই স্থিতিশীল হয়। এসব আমার কথা নয়, সাংবাদপত্র বিশেষজ্ঞদের কথা। কিন্তু দু:খজনক বিষয় এই যে, আমাদের পুঁজিবাদী সমাজ ব্যবস্থায় ব্যবসায়ী, আমলা, রাজনীতিবিদ, অভিনেত্রী, নায়িকা, গায়িকা যাদের জীবনে সাংবাদিকতার কোন অভিজ্ঞতা নেই, সাংবাদিকতাকে ভালোভাবে বুঝেন না, জানেন না। তারাই এখন সংবাদপত্রের সম্পাদক বনে যাচ্ছেন।

কথাগুলো এ কারণে যে, আমাদের দেশে বহু রাজনৈতিক ব্যক্তি, ব্যবসায়ী, আমলা পত্রিকার সম্পাদক হয়েছেন। সম্প্রতি মৌসুমী নামে কিন্তু একজন অভিনেত্রী একটি অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক হলেন। আমি জানি না তার জীবনে তার জীবনে সাংবাদিকতার কোন অভিজ্ঞতা আছে কিনা। যদি না থাকে তাহলে প্রথমে তিনি রিপোর্টিংয়ে কাজ করতে পারতেন। পরে না হয় সম্পাদক হলেন। মনে হয় না তিনি সংবাদকর্মী ছিলেন। তিনি জানিয়েছেন এটি তার স্বপ্ন। সাংবাদিকতা না করে কিভাবে আপনি সম্পাদক বনে গেলেন? দু:খনজক। সাংবাদিকতার জন্য এটি খুব খারাপ সংকেত। এসব কারণেই মনে হয় বাংলাদেশে সাংবাদিকতার কোন বিকাশ ঘটছে না। কেন সাংবাদিকতার জন্য সরকার কোনো আইন করছে না?

মৌসুমী আপা, আপনি অভিনেত্রী হিসেবে আপনার জন্য শ্রদ্ধা। কিন্তু সম্পাদক হওয়ায় আপনাকে অভিনন্দন জানাতে পারছি না একজন সংবাদকর্মী হিসেবে। দু:খিত। যদিও আমার অভিনন্দন নিয়ে আপনার কিছু যায় আসে না।

শাহাদাত হোসেন তৌহিদের ফেসবুক ওয়াল থেকে নেয়া