‘কণ্ঠশৈলীর জন্য অমর হয়ে থাকবেন’

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট ২০২০ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৭

‘কণ্ঠশৈলীর জন্য অমর হয়ে থাকবেন’

বিনোদন প্রতিবেদক ১০:৫৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ০৯, ২০২০

print
‘কণ্ঠশৈলীর জন্য অমর হয়ে থাকবেন’

দুদিন আগে মারা গেছেন কন্ঠ শিল্পী এন্ড্রু কিশোর। তাঁর মৃত্যুতে এখনো শোক বইছে বাংলাদেশের সংস্কৃতি জগতে। একের পর এক তাকে ঘিরে নানা প্রশংসা শুনিয়ে যাচ্ছে এন্ড্রু কিশোরের সহযোদ্ধারা।

প্রকাশ করছে বুকের ভেতর জমে থাকা কষ্ট ও দুঃখ। তেমনিভাবে কষ্ট নিয়ে আরেক কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা ছুটে এসেছিলেন এন্ড্রু কিশোরের মরদেহের কাছে।

এন্ড্রু কিশোরের সঙ্গে জুটিতে অনেক গান করেছেন। শেষ বিদায়ের আগে তাকে নিয়ে শুনিয়েছেন নানা প্রশংসা। আন্তর্জাতিক খ্যাতিমান এই গায়িকা ফেসবুকে এক শোক বার্তায় বলেন, ভারাক্রান্ত হৃদয়ে সংগীত অঙ্গনের এক বলিষ্ঠ মানুষকে বিদায় জানাচ্ছি। যাকে মেলোডিয়াস কণ্ঠ ও হৃদয়ে ঝড় তোলা গান অমর করে রাখবে।

এন্ড্রু কিশোর বাংলাদেশে ‘প্লেব্যাক সম্রাট’ নামে পরিচিত। কয়েক হাজার সিনেমার গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে- ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’, ‘হায়রে মানুষ রঙের ফানুস’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি’, ‘আমার বুকের মধ্যে খানে’ প্রভৃতি। ১৯৫৫ সালের ৪ নভেম্বর রাজশাহীতে জন্মগ্রহণ করেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ম্যানেজমেন্ট বিভাগে পড়াশোনা করেছেন। আব্দুল আজিজ বাচ্চুর অধীনে প্রাথমিকভাবে সংগীত পাঠ গ্রহণ শুরু করেন এন্ড্রু কিশোর। মুক্তিযুদ্ধের পর নজরুল, রবীন্দ্রনাথ, আধুনিক, লোক ও দেশাত্মবোধক গানে রেডিওতে তালিকাভুক্ত শিল্পী হন।