ফারিনের প্রথম ভালোবাসা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০ | ১৮ আষাঢ় ১৪২৭

ফারিনের প্রথম ভালোবাসা

বিনোদন প্রতিবেদক ১২:২৩ অপরাহ্ণ, জুন ২২, ২০২০

print
ফারিনের প্রথম ভালোবাসা

এই করোনাকালেও ১৬টি নাটকে অভিনয়। আগামী ঈদের আগে জানি কয়টিতে করবেন সেটা সময়ের ওপর ছেড়ে দেওয়া যাক। চলছে সে প্রস্তুতিও।

পাশের ‘বাড়ির মেয়ে’ নাটক করে বেশ প্রশংসা কুড়ায়। যেখানে প্রেম, আবেগ-অনুভূতি সবই ছিল। এ নিয়ে কথা হতেই বলেন, আমার বাস্তব জীবনের ঘটনার সঙ্গে এটা মিলে গেছে। বলতে পারেন, ৭৮ বছর আগের ফারিনকে পর্দায় দেখেছেন দর্শকরা। এটা সত্যিকারের গল্প, আমার জীবনেরও সঙ্গে মিলে গেছে। আমার জীবনের সঙ্গে মিল থাকায় অভিনয়ও ভালো হয়েছে মনে হয়। যখন নাটকটা দেখছিলাম, মনে হচ্ছিল আমাকেই দেখতে পাচ্ছি। তবে নাটকের পরিণতির সঙ্গে আমার বাস্তব জীবনের মিল নেই।

তবে এটা ঠিক একটা সময় প্রেমে ব্যাকুল ছিলেন ফারিন। সে কথা বলতে শোনালেন, আমার প্রথম ভালো লাগা আমার প্রতিবেশীর প্রতিই ছিল। সে আমাদের বিল্ডিংয়ে থাকত, এখনো থাকে। শুনেছি দেশের বাইরে থাকে। আমিও আর ওসব নিয়ে মাথা ঘামাই না।

একবার যদি ওই ছেলেকে লিফটে কিংবা বাসার নিচে দেখতাম, সারা দিন ওটাই চিন্তা করতাম। সাত দিনও চলে যেত। আমার একটা ডায়েরি ছিল। সেখানে ওই ছেলেকে নিয়ে অনেক গল্প-কবিতা লিখেছি...। বারান্দায় দেড়-দুই ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতাম শুধু একনজর দেখব বলে। বড় হওয়ার সঙ্গে এসব হারিয়ে গেছে।

২২ বছর বয়সে এখন অনেক পরিণত হয়েছেন ফারিন। করলে তো এখন সরাসরি বিয়েই করবেন। তবে এখনি সে কাজ করতে রাজি নন তিনি। পড়াশোনা শেষ করে। কিন্তু ত্রিশের আগে নয়।

তবে তাই বলে প্রেমের প্রস্তাব আসা কিন্তু বন্ধ থাকেনি তার। প্রতিদিনই প্রেমের প্রস্তাব আসে তার কানে। এমনকি বায়োডাটাও পান।