নিজেই সুর আবিষ্কার করি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯ | ৭ কার্তিক ১৪২৬

ক থা সা মা ন্য

নিজেই সুর আবিষ্কার করি

তৌফিকুল ইসলাম ১২:১১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

print
নিজেই সুর আবিষ্কার করি

গীতিকার ফরিদা ফারহানা গানের প্রতি অনুরাগ ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে কথা বলেছেন তৌফিকুল ইসলামের সঙ্গে

আপনার লেখা উল্লেখযোগ্য কয়েকটি গানের নাম বলুন...

‘প্রেমের গল্প’ গেয়েছেন আসিফ আকবর এবং পলি, ‘স্বপ্নযাত্রা’ এবং ‘নানা রঙের মানুষ’ গানটি গেয়েছেন প্রতীক হাসান, ‘ঝুনঝুনি’ গেয়েছেন রাফাত, ‘ঘুমহীন সারা রাত’ গেয়েছেন শিরিন মুন্নি, ‘মনের উঠোন বাড়ি’ গেয়েছেন এম কে বাশার, রোমানা ইসলাম গেয়েছেন ‘নতুন বৈশাখ’, শাহানাজ বাবু গেয়েছেন ‘ও আমার কৃষ্ণ কালা’, ‘শান্তি অধিদপ্তর’ গেয়েছেন রুপম ইসলাম, ‘অবুঝ ছেলে বেলা’ গেয়েছেন সাকিব জাকি চৌধুরী (ত্বা-সীন)। আমার আরও অনেক গান আছে প্রকাশিত হয়েছে, সব মিলিয়ে ৩৫টার মতো গান রিলিজ হয়েছে।

গান লেখার প্রতি আগ্রহ কীভাবে জাগল?
আমি মূলত কবিতা লিখি। আমার লেখা ছয়টা কবিতার বই প্রকাশ পেয়েছে। কবিতা লিখতে লিখতে মনে হলো গানও মনের ভাব প্রকাশের একটা মাধ্যম। এভাবেই গান লেখা শুরু।

কবিতার চেয়ে গান লেখা কি সহজ না কঠিন মনে হয়?
কবিতা এবং গান দুইটাই লেখা কঠিন মনে হয়।

গানের ভাষায় রোমান্স আনার জন্য কী করেন?
প্রচুর গান শুনি।

আপনার লেখা গান যখন শিল্পীরা গান, তখন কেমন লাগে?
অনেক আনন্দের একটা বিষয়, নিজের ভাব যে কোনো মাধ্যমে প্রকাশ হলেই ভালো লাগে।

গান লিখে আপনার নিজের গাইতে ইচ্ছে করে না? নাকি গুনগুন করেন গান লেখার পর?
হাহা, না গান করার ইচ্ছে আমার একেবারে নেই। তবে গান লিখতে লিখতে আমি নিজেই একটা সুর আবিষ্কার করি।

গান নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা...
আমার প্রিয় শিল্পী রুনা লায়লা, সাবিনা ইয়াসমিন, মোহাম্মদ খোরশেদ আলম- তাদের দিয়ে গান করানোর ইচ্ছে আছে। আর আমার গান যেন সবাই শুনে সেই রকম একটা গান লিখতে চাই।