মিডিয়াতে নেগেটিভ কথা বেশি ছড়ায়

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৬

ক থা সা মা ন্য @ খোলা কাগজ

মিডিয়াতে নেগেটিভ কথা বেশি ছড়ায়

তৌফিকুল ইসলাম ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

print
মিডিয়াতে নেগেটিভ কথা বেশি ছড়ায়

মিডিয়াতে নেগেটিভ কথা বেশি ছড়ায় চিত্রনায়িকা আঁচল অভিনয়ে ফিরছেন ‘রাগী’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। তার বর্তমান ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে কথা বলেছেন তৌফিকুল ইসলামের সঙ্গে

আপনি এখন কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?
রাগী সিনেমার কাজ চলছে। আরও দুটো মুভির কাজ হাতে আছে। এ ছাড়া টুকটাক কিছু কাজ করছি।

প্রিয়জন প্রয়োজন ছবিটির কাজ শুরু হয়েছে?
এ ছবিটার কাজ এখনো শুরু হয়নি, শুরু হবে।

এ ছাড়া ওয়েব সিরিজের কাজ কি নতুন করে হাতে নিয়েছেন?
না।

আপনারা প্রযোজনা সংস্থা খোলার যে উদ্যোগ নিয়েছিলেন, সেটির অবস্থা এখন কেমন?
এটি নিয়ে কাজ চলছে, এখনো সম্পূর্ণ হয়নি। কাজগুলো কমপ্লিট হয়ে গেলেই হয়তো বা আমরা শুটিংয়ে যাব।

বাংলা চলচ্চিত্রের সুদিন ফেরানোর জন্য এ উদ্যোগটি নিয়ে আপনি কতটুকু আশাবাদী?
চলচ্চিত্রে সুদিন ফেরানোর জন্য সবাইকেই সেক্রিফাইস করতে হবে। এখানে সবাই সবাইকে হেল্প করাটা জরুরি। এখানে কেউ কারও নেগেটিভ কথা বা ইস্যুগুলোকে না খুঁজে পজিটিভ দিকগুলো দেখে সবার পাশে থাকা উচিত। মিডিয়াতে নেগেটিভ কথাগুলোই বেশি ছড়ায়। এখানে পজিটিভ কথাগুলো কেউ বলে না। আমরা সবাই মিলে একটা পরিবারের সদস্য। একজনের বদনাম মানে সবার বদনাম। এটা খেয়াল রাখলে সবার মাঝেই বোঝাপড়াটা সুন্দর থাকে।

রাগী সিনেমার গানের শুটিং কি দেশে হবে?
না, দেশের বাইরে হবে।

দেশের বাইরে কোথায় শুটিং হবে?
এখনো আমি ফাইনাল কিছু জানি না। মে বি মালয়েশিয়া বা চীন এরকম কোনো দেশে হতে পারে।

রাগী সিনেমার মাধ্যমেই তো আপনি দীর্ঘদিন পর চলচ্চিত্রে ফিরছেন। এ সিনেমাটা নিয়ে বলুন...
রাগী সিনেমাটা খুব অ্যাকশনভিত্তিক ছবি। এ ছবিতে আমার বড় বোন হিসেবে মুনমুন আপু কাজ করছেন। বেসিক্যালি ‘রাগী’ দেখা যাবে তাকেই, আমি তার ছোট বোন হিসেবে অন্যরকম থাকব, মানে সফট মাইন্ডের। ছবির হিরোর সঙ্গে আমার বড় বোনের একটা ক্ল্যাশ থাকে, এটা নিয়েই ছবিটির কাহিনী।

বাংলাদেশের মুভি এখন কোন অবস্থানে আছে বলে মনে করেন? কোরবানির ঈদে মুক্তি পাওয়া ছবি দুটো ফ্লপ হয়েছে এমনটা বলা হচ্ছে...
আসলে এখন মুভি অনেক কমে গেছে। একটা ছবি বানালে নাকি প্রফিট হয় না। কী বলব, এগুলো আসলে কমন প্রশ্ন। এক্ষেত্রে বলতে বলতে আর কিছু বলার নেই। নতুন করে আর কী বলব বলেন? আর কিছু বলার নেই।

আপনারা তো সংকট সমাধানের উদ্যোগ নিয়েছেন। এখন অন্যদেরও এগিয়ে আসা উচিত বলে মনে করেন?
আমরা উদ্যোগ নিয়েছি, ঠিক আছে। এখনো বলতে পারছি না, কারণ এটা ইমপ্রুভ হচ্ছে। হওয়ার পর তারপর দেখা যাক।

সময় দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।
আপনাকেও ধন্যবাদ।