দুরন্ত টিভির অষ্টম মৌসুম শুরু হচ্ছে

ঢাকা, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

দুরন্ত টিভির অষ্টম মৌসুম শুরু হচ্ছে

বিনোদন প্রতিবেদক ৩:১৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৯

print
দুরন্ত টিভির অষ্টম মৌসুম শুরু হচ্ছে

দুরন্ত টিভির অষ্টম মৌসুমের অনুষ্ঠান সম্প্রচার শুরু হবে আগামী ১৪ জুলাই থেকে। এ উপলক্ষে গতকাল বুধবার বনানীতে দুরন্ত টিভির কার্যালয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ সময় অষ্টম মৌসুমের অনুষ্ঠান নিয়ে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন দুরন্ত টিভির অনুষ্ঠান প্রধান মোহাম্মদ আলী হায়দার।

এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন নতুন ধারাবাহিক ‘সিসিমপুর’- এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলম, নির্বাহী প্রযোজক মনোয়ার শাহাদাত দর্পন ও সিসিমপুরের বন্ধুরা, ‘টিরিগিরি টক্কা (সিজন ২)’- এর পরিচালক শাহাদাৎ হোসেন সুজন ও শিল্পী সুজাত শিমুল, ‘রঙের খেলায় সুরের ভেলায়’- এর শিল্পী দেবলীনা সুর ও আবিদা সুলতানা, বিদেশি অনুষ্ঠানগুলোর প্রযোজক বাকার বকুলসহ অন্যান্য অনুষ্ঠানের শিল্পী, শিশুশিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক এবং দুরন্ত টেলিভিশনের কর্মকর্তা ও কলা-কুশলীরা।

মোহাম্মদ আলী হায়দার শুরুতেই দুরন্তর নতুন অনুষ্ঠানগুলোর সংক্ষিপ্ত বিবরণ উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন, সপ্তম মৌসুম শেষে আমরা অষ্টম মৌসুম শুরু করতে যাচ্ছি আগামী ১৪ জুলাই থেকে। এবার দেশি-বিদেশি নতুন নতুন অনেক অনুষ্ঠান যুক্ত হয়েছে প্রতিবারের মতো। বাংলাদেশের সব মা বাবা ও শিশুদের জন্য আমরা নতুন ও বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান তৈরি করছি সবসময়। সঙ্গে সঙ্গে এটাও খেয়াল করা হয় যেন শিশুরা আনন্দের সঙ্গে কিছু শিখতেও পারে। ‘সিসিমপুর’- এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন- সিসিমপুর এমন অনুষ্ঠান যা শিশুদের আত্মবিকাশে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখে।

আর দুরন্ত টিভি সব দিক থেকে শিশুদের জন্য সঠিক ও পরিপূর্ণ বিনোদনের এক মাধ্যম। সবচেয়ে আনন্দের বিষয় হল এখন সিসিমপুর আসছে দুরন্ত টিভিতে। যেন সিসিমপুর অবশেষে তার বাড়ি ফিরে এসেছে।

‘সিসিমপুর’ প্রসঙ্গে দুরন্ত টিভির পরিচালক অভিজিৎ চৌধুরী বলেন, আমরা সবাই সিসিমপুরের ভক্ত। আমরা অনেক আগে থেকেই চেয়েছি সিসিমপুর আমাদের চ্যানেলে প্রচার করা হবে। ওদের গল্প থেকে আনন্দের সঙ্গে সঙ্গে শেখা যায় অনেক কিছু যা কিনা দুরন্তরও মূল লক্ষ্য। তাই সিসিমপুর ও দুরন্ত একে অপরের পরিপূরক। ‘রঙের খেলায় সুরের ভেলায়’- এর গানের শিল্পী দেবলীনা সুর বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মতো এই অনুষ্ঠানটি করেছি। এই অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে বুঝেছি শিশুরা আসলে কতটা স্বচ্ছ হয়। ওদের স্বচ্ছতা আমাদেরও ছুঁয়ে যায়। এখানে গানগুলো ওরা অনেক আনন্দ নিয়ে শিখতে পারবে।’