অ্যাংকরিং নিয়ে ভালো কিছু করতে চাই

ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০১৯ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

অ্যাংকরিং নিয়ে ভালো কিছু করতে চাই

সাজ্জাদ হোসেন ২:২০ অপরাহ্ণ, মার্চ ১২, ২০১৯

print
অ্যাংকরিং নিয়ে ভালো কিছু করতে চাই

বর্তমান সময়ের সম্ভাবনাময় টিভি উপস্থাপক, মডেল, অভিনেত্রী নীল এইচ জাহান নিজের কাজ ও ব্যস্ততার কথা জানিয়েছেন সাজ্জাদ হোসেনকে

আপনার জন্ম, বেড়ে ওঠার গল্প যদি বলতেন...
আমার জন্ম ফেনিতে, সেখানেই শৈশব কৈশোর কেটেছে। এরপর পরিবারের সঙ্গে ঢাকায় চলে আসি। ঢাকাতেই পরবর্তীতে এইচএসসি কমপ্লিট করে একটা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছি। সব মিলে খুব সাদামাটা একটা শৈশব কৈশোর কেটেছে। বর্তমানে আমি সাধারণ জীবন যাপন করতে পছন্দ করি।

মিডিয়ায় শুরুটা কীভাবে?
একেবারে শুরুতে আরজে হিসেবে মিডিয়ায় আমার নাম লেখানো। তারপর বাংলাভিশনে বেশকিছু প্রোগ্রাম উপস্থাপনা করার মাধ্যমে ভিউচুয়াল মিডিয়ায় আমার পদচারণা। তিন বছর বাংলাভিশনেই কাজ করেছি। ওখানে ‘সকাল বেলার রদ্দুর’ নামে একটা প্রোগ্রাম হতো সেটা উপস্থাপনা করতাম। তারপর ‘সকালের লাইভ প্রোগ্রাম’, ‘মিউজিক ক্লাব’সহ বিভিন্ন প্রোগ্রাম নিয়মিত উপস্থাপনা করেছি। তারপর এনটিভির একটা মিউজিকার প্রোগ্রাম ছিল ‘এই সময়ের গান’ সেটার উপস্থাপনা করি।

যদি আমরা গ্লিটস শোবিজের কথা বলি, মানে বিজ্ঞাপন, নাটক তাহলে শুরুটা কীভাবে?
মডেলিং দিয়েই শুরু। আমার প্রথম কাজ আদনান আল রাজীবের নির্দেশনায় এশিয়ান পেইন্টসের একটা টিভিসি। তারপর গ্রামীণ ফোনের একটি টিভিসি করেছি, ক্লোজ আপ কাছে আসার সমাপ্ত গল্পে কাজ করেছি। আর সত্যি বলতে আমি আসলে অভিনয় জগতের কেউ ছিলাম না আগে।

শখের বশে নাটকে কাজ করা। প্রথম কাজ ছিল বদরুল আনাম সাউদের একটি জনপ্রিয় নাটক ‘অক্ষর থেকে উঠে আসা মানুষ’ এ। নাটকটিতে সুবর্ণা মুস্তাফা আপা, আফজাল ভাইয়া আর আমি অভিনয় করি। তারপর বেশ কয়েকটা নাটকে কাজ করেছি সব এই মুহূর্তে মনে পড়ছে না। মাসুদ সেজান ভাইয়ার ‘খেলোয়াড়’ নামের একটা সিরিয়ালে কাজ করেছি। সর্বশেষ গত ভ্যালেন্টাইন ডেতে ‘সিঙ্গেল ই মঙ্গল’ নামের একটা নাটকে অভিনয় করেছি।

বর্তমানে কী কাজ করছেন?
বর্তমানে নিউজ২৪ প্রতিদিন রাত সাড়ে ৯টায় ‘ইটস অ্যামাজিং’ নামের একটা শো করছি। সেই সঙ্গে আরটিভিতে এক্সক্লুসিভ মিউজিক্যাল শো ‘ক্লাব এশিয়া’ অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করছি, সেখানে উপমহাদেশের বিভিন্ন শিল্পী অতিথি হিসেবে গান করে থাকে। এ ছাড়া নিউইয়র্ক থেকে প্রচারিত টিবিএন২৪ নামের একটা বাংলাদেশি চ্যানেলে প্রোগ্রাম প্রেজেন্টার হিসেবে কাজ করছি। আসছে ১৫ মার্চ থেকে এনটিভিতে একটা রান্নার অনুষ্ঠান প্রচারিত হবে। অনুষ্ঠানটি আমি উপস্থাপনা করব। সর্বশেষ গতকাল মুস্তফা ফারুকি ভাইয়ের একটা টিভিসির কাজ শেষ করলাম খুব শিগগিরই এটা প্রচারিত হবে।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?
ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বলতে অ্যাংকরিং নিয়ে আরও ভালো কিছু করতে চাই। পাশাপাশি মডেলিং তো করছিই। এ ছাড়া পড়াশোনাটাও শেষ করতে চাই। আর এর মাঝে ভালো কোনো নাটক টেলিফিল্মে কাজের সুযোগ পেলে অবশ্যই করব। যদিও ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছি কিন্তু মিডিয়াতেই থিতু হতে চাই।

দর্শকদের উদ্দেশে কিছু বলতে চান?
দর্শকদের উদ্দেশে বলবো, আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আরও ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে পারি। আমার প্রোগ্রামগুলো বেশি বেশি দেখবেন। সেই সঙ্গে অনুরোধ জানাব দেশি নাটক, সিনেমা ও অনুষ্ঠান দেখার। আর সবার জন্য অনেক ভালোবাসা।