আমি স্রষ্টার কাছে কৃতজ্ঞ

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ক থা সা মা ন্য

আমি স্রষ্টার কাছে কৃতজ্ঞ

তৌফিকুল ইসলাম ৯:২৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৮

print
আমি স্রষ্টার কাছে কৃতজ্ঞ

বর্ণা চৌধুরী চ্যানেল আই ও ইটিভি বাংলার ‘সুর দুনিয়া এপার ওপার’ রিয়েলিটি শোর সেকেন্ড রানারআপ ছিলেন। সংগীত নিয়ে তার বর্তমান ব্যস্ততা প্রসঙ্গে কথা বলেছেন তৌফিকুল ইসলামের সঙ্গে

আপনার বর্তমান কাজ নিয়ে বলুন...
গান নিয়েই আছি। ব্রাকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে আমি গ্রুমার হিসেবে কাজ করি। টিভি শো করছি। আজ বৈশাখী চ্যানেলে শুটিং আছে। এ ছাড়া সলো অ্যালবামের কাজ চলছে।

আপনি কি ধরনের গান করতে পছন্দ করেন?
সব ধরনের গান গাইতে চেষ্টা করি। আধুনিক, নজরুল গীতি গাইতে ভালো লাগে।

বাচ্চাদের নিয়ে কাজ করতে কেমন লাগে?
খুব ভালো, আমি স্রষ্টার কাছে কৃতজ্ঞ এ কাজটার সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে।

‘সুর দরিয়া এপার ওপার’ প্রোগ্রামে দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে কেমন লেগেছিল?
যখন গেয়েছিলাম, তখন গানের ব্যাপারেই শুধু চিন্তা ছিল। কিন্তু গ্রুমিং সেশন শুরু হওয়ার পর আমি একজন সংগীত শিল্পী হিসেবে যে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছি, এ অনুভূতি তৈরি হয়। আর তখন থেকেই মনে হতো, আমার গানের মাধ্যমে দেশকে সম্মান জানাতে চাই। আমি তখন চাইতাম আমার প্রতিটি পারফর্মেন্সের মাধ্যমে দেশের সম্মান বজায় থাকুক।

আপনি কি ছোটবেলা থেকেই গান শিখতেন?
জি, তিন বছর থেকেই গান শিখছি। আমার হাতেখড়ি আমার মায়ের হাতে।

রিয়েলিটি শো আমাদের সংগীতে কতটা অবদান রাখতে পারছে বলে আপনি মনে করেন?
রিয়েলিটি শো এর মাধ্যমে অনেক ছেলেমেয়ে যারা ভালো গান করে তাদের সামনে আসার পথটা সহজ হয়।

গ্রুমার হিসেবে আপনাকে কি ভূমিকা পালন করতে হয়?
যে রিয়েলিটি শো এর গ্রুমার হিসেবে কাজ করি, তাতে গানের চর্চা, মিউজিকের সঙ্গে ব্যান্ডের রিহার্সেল, গানের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং পারফর্মেন্স সম্পর্কে অবগত করার ভূমিকা আমাকে পালন করতে হয়।