কাতারে সপ্তাহব্যাপী বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল ১৯ মার্চ

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯ | ১০ আষাঢ় ১৪২৬

কাতারে সপ্তাহব্যাপী বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল ১৯ মার্চ

খোলা কাগজ ডেস্ক ৮:০০ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৬, ২০১৯

print
কাতারে সপ্তাহব্যাপী বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল ১৯ মার্চ

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে কাতারে সপ্তাহব্যাপী ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল’ পালন করবে বাংলাদেশ ফোরাম কাতার। এ লক্ষ্যে কাতারের শিক্ষা ও সংস্কৃতি এবং পর্যটন নগরী ‘কাতারা’ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যৌথভাবে এবং বাংলাদেশ দূতাবাসের সহযোগিতায় নানা ধরণের অনুষ্ঠানমালা চূড়ান্ত করেছে সংগঠনটি।

১৯ মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত ফেস্টিভ্যাল অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ১৯ ও ২০ মার্চ দু'দফা দেখানো হবে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র ‘আয়নাবাজি’। কাতারায় ড্রামা থিয়েটারে এই সিনেমাটি দেখানো হবে ১০ ও ২০ রিয়াল মূল্যের টিকেটের বিনিময়ে। এ দুদিন বিকাল চারটা থেকে সাড়ে ছয়টা এবং সন্ধ্যা সাতটা থেকে সাড়ে নয়টা পর্যন্ত দেখানো হবে আয়নাবাজি। এর ফলে দীর্ঘদিন পর বিদেশের মাটিতে বসে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র দেখার সুযোগ পাবেন কাতার প্রবাসীরা। তাছাড়া শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও ছবি প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন আয়োজন রয়েছে।

বুধবার কাতারায় স্থানীয় একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য এসব কথা জানান সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মিস মনিকা, আর্ট এবং কালচার বিভাগের সহ-সভাপতি শিল্পি রহমান, বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব মাহবুর রহমান।
বাংলাদেশি ও স্থানীয় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বাংলাদেশ ফোরাম কাতারের সভাপতি ইফতেখার আহমেদ। তিনি জানান, কাতারস্থ প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটি এবং কাতারের নাগরিক ও এদেশে বসবাসরত বিদেশিদের সামনে বাংলাদেশের ইতিহাস ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তুলে ধরার জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ফোরাম কাতার। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সদস্য এম এ মুরাদ হোসেইন।

এসময় আরো জানানো হয়, কাতার ও বাংলাদেশের ঐতিহ্য ধারণ করে তোলা ছবি প্রতিযোগিতায় সেরা ২০টি ছবি প্রদর্শিত হবে ২৩-২৫ মার্চ। শিশুদের জন্য চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে ২২ মার্চ। এদিন সকাল নয়টা থেকে ১১টা পর্যন্ত বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল অ্যান্ড কলেজে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে। প্রতিযোগিতায় সেরা ২০ জন ২৩ মার্চ কাতারায় একটি চিত্রাঙ্কণ কর্মশালায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে। এই কর্মশালা পরিচালনা করবেন কালিদাস কর্মকার। এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার জন্য নিবন্ধনের শেষ তারিখ ২০ মার্চ। বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মাঝে রয়েছে পুরস্কারের ব্যবস্থা রয়েছে।