নিরাপত্তা শঙ্কায় শিক্ষার্থীরা

ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

তৌহিদুল হত্যাকাণ্ড

নিরাপত্তা শঙ্কায় শিক্ষার্থীরা

তিতলি দাস, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ৪:০৬ অপরাহ্ণ, মে ০৭, ২০২০

print
নিরাপত্তা শঙ্কায় শিক্ষার্থীরা

মেসে ঢুকে গত ১ মে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষার্থী ছিল। এ ঘটনার পর থেকেই নিজেদের নিরাপত্তা শঙ্কিত শিক্ষার্থীরা।

জাককানইবি শিক্ষার্থী সিফাত শাহরিয়ার প্রিয়ান বলেন, ময়মনসিংহ শহরের একটি মেসে ঢুকে কিছু সন্ত্রাসীর দ্বারা একজন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র খুন হওয়া ঘটনায় শহরের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে প্রশবিদ্ধ করে।

যারা শহর তথা জনপ্রতিনিধির দায়িত্বে আছেন তারা নিশ্চয়ই জানেন শহরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন দীর্ঘদিনের। কিন্তু ফল কি পেলাম! আমাদের ছাত্রের লাশ পেলাম। আমি এখন এ হত্যার দ্রুত বিচার চেয়ে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এদিকে, তৌহিদুল ইসলাম হত্যার প্রতিবাদে ও অপরাধী দ্রুতত শনাক্ত করে আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবিতে গত রোববার পৃথক পৃথক জায়গায় মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়য়ের জয় বাংলা ভাস্কর্যের সামনে সাধারণ শিক্ষকদের ব্যানারে মানববন্ধন হয়। শিক্ষকরা বলেন, আমাদের সন্তান হত্যার বিচার চাই এবং সেটি অনতিবিলম্বে।

অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয়য়ের শিক্ষার্থীরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ত্রিশাল বাসস্ট্যান্ড ও ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছেন।

এ সময় বক্তারা বলেন, অপরাধীকে দ্রুত শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনুন নতুবা এ দুর্যোগ সময়েও ঘরে বসে থাকবে না শিক্ষার্থীরা। তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। এছাড়া নিহতের পরিবারকে অর্থনৈতিক সহযোগিতারও দাবি জানানো হয়।

ময়মনসিংহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আল-আমিন জানান, আসামি শনাক্ত করতে ও আইনের আওতায় আনতে আমরা তৎপর। আশা করি আসামিদের দ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পারব।