গোপালগঞ্জের ভিসি নাসিরকে লালকার্ড

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬

গোপালগঞ্জের ভিসি নাসিরকে লালকার্ড

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি ১০:৩৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৯

print
গোপালগঞ্জের ভিসি নাসিরকে লালকার্ড

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ভিসি (উপাচার্য) ড. খোন্দাকার নাসিরউদ্দিনকে লাল কার্ড দেখিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার বিকাল ৫টায় আন্দোলনের নবম দিনে শিক্ষার্থীরা তাকে লাল কার্ড দেখিয়ে ক্যাম্পাস ছাড়ার আহ্বান জানান। এদিন ভিসির পদত্যাগের দাবিতে রাত ৮টায় শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল বের করেন।

এর আগে বেলা সাড়ে ১১টায় তারা ভিসির কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। গতকাল সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ভবনের প্রধান ফটকে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন শুরু করেন। ভিসির বিরুদ্ধে নানা স্লোগানে ক্যাম্পাস মুখর করে রেখেছেন তারা। শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, ভিসি পদত্যাগ না করা পর্যন্ত তাদের আন্দোলন চলবে। গত ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষার্থীরা ভিসির বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে নিয়ে আন্দোলন শুরু করেন।

ভিসির কুশপুত্তলিকা দাহ : আন্দোলনের নবম দিন শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ক্যাম্পাসের জয় বাংলা চত্বরে উপাচার্য প্রফেসর ড. না?সির উদ্দিনের কুশপুত্ত?লিকা দাহ ক?রেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এ সময় ভিসি অপসারণের একদফা দাবিতে নানা স্লোগান দিতে থাকেন তারা। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, তারা আরও জানান, ভিসি পদত্যাগ বা অপসারণ হলেই কেবল তারা আন্দোলন থেকে সরে দাঁড়াবেন; অন্যথায় আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

গত ১১ সেপ্টেম্বর আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। পরে জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ তুলে নেওয়াসহ আরও কয়েকটি দাবি কর্তৃপক্ষ মেনে নিলেও ভিসির পদত্যাগ দাবিতে গত ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয় আন্দোলন।

আন্দোলনের মধ্যে গত ২১ সেপ্টেম্বর বেলা ১২টার দিকে ক্যাম্পাসের বাইরে বেশ কয়েকটি জায়গায় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে এদিন বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। তবে নির্দেশ অগ্রাহ্য করে ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা।