শ্রেণিকক্ষ অপরিচ্ছন্ন: ফেসবুকে লেখায় বহিষ্কার ৬

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬

শ্রেণিকক্ষ অপরিচ্ছন্ন: ফেসবুকে লেখায় বহিষ্কার ৬

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি ৬:১৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৯

print
শ্রেণিকক্ষ অপরিচ্ছন্ন: ফেসবুকে লেখায় বহিষ্কার ৬

শ্রেণিকক্ষে অপরিচ্ছন্নতা নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ায় গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমআরএসটিইউ) ছয় শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বহিষ্কৃতরা হলেন হাবিবুল্লাহ নিয়ন, রাশেদ হাসান, মুনিম ইসলাম হীরা, ঝিলাম হায়দার, ফাহমিদা বৃষ্টি এবং দেবব্রত রায়। তারা সবাই ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে তুমুল সমালোচনা চলছে। এই আদেশের একটি কপি ফেসবুকে ভাইরালও হয়েছে। সমালোচকরা বলছেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন স্বেচ্ছাচারী আচরণ করেছে।

যাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তাদের মধ্যে হাবিবুল্লাহ নিয়নকে এক বছরের জন্যে এবং বাকিদের ছয় মাসের জন্যে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজিস্ট্রার নূরউদ্দিন আহমদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বলা হয়, ‘অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের তৃতীয় বর্ষের (২০১৬-১৭) ছাত্র হাবিবুল্লাহ নিয়ন বিভাগীয় ক্লাসরুমের পরিচ্ছন্নতা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লেখালেখি করে। এই লেখালেখিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি যাতে নষ্ট না হয় এই মর্মে বিভাগীয় চেয়ারম্যান সতর্ক করেন। তা উপেক্ষা করে শিক্ষার্থীরা ফেসবুকে আরেকটি স্ট্যাটাস দেয়।’

‘এই প্রেক্ষিতে নিয়ন এবং তার কয়েকজন সহযোগী কিছু অপ্রীতিকর মন্তব্য লিখে যার ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে এবং বিভাগের চেয়ারম্যানকে নিয়েও আপত্তিকর মন্তব্য করেছে যা শৃঙ্খলা পরিপন্থি এবং গর্হিত কাজ।’

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে তাদের আপত্তিকর ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে আলোচনা করেই বিভাগীয় একাডেমিক কমিটি এই বহিষ্কারাদেশের সিদ্ধান্ত দিয়েছে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

নূরউদ্দিন আহমদ গণমাধ্যমকর্মীদেরকে বলেন, তিনি আদেশ পেয়ে চিঠি ইস্যু করেছেন। এই ঘটনার কিছু জানেন না। এটি বিভাগ কর্তৃপক্ষের একাডেমিক কমিটির সিদ্ধান্ত।