জাকসুর প্রধান নির্বাচন কমিশনার আব্দুল মান্নান

ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬

জাকসুর প্রধান নির্বাচন কমিশনার আব্দুল মান্নান

জাবি প্রতিনিধি ২:২০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০১৯

print
জাকসুর প্রধান নির্বাচন কমিশনার আব্দুল মান্নান

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (জাকসু) নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল মান্নান চৌধুরীকে মনোনীত করা হয়েছে। বুধবার সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম।

উপাচার্য বলেন, ‘অধ্যাপক আব্দুল মান্নান চৌধুরীকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার করা হয়েছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার আরও দু’জন সহকারী নির্বাচন কমিশনার বাছাই করে জাকসুর পূর্ণাঙ্গ নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন।’

এ বিষয়ে অধ্যাপক আব্দুল মান্নান চৌধুরী বিশ্ববিদ্যালয়ের সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করে খোলা কাগজকে বলেন, ‘জাকসু নির্বাচন একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং স্পর্শকাতর বিষয়। মাননীয় উপাচার্য আমাকে মৌখিকভাবে নির্বাচন কমিশনের কথা বলেছেন। এখনো লিখিত আদেশ হাতে পাইনি।’

অপরদিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (জাকসু) এর গঠনতন্ত্র সংশোধনের জন্য জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ প্রশাসনকে কিছু প্রস্তাবনা দিয়েছে। গত মঙ্গলবার বিকালে প্রশাসনের সাথে শাখা ছাত্রলীগের অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় ছাত্রলীগ এই প্রস্তাবগুলো তুলে ধরেন।

প্রস্তাবনাগুলো হলো: কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সদস্য সেই সব শিক্ষার্থী হবেন যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে স্নাতক/স্নাতকোত্তর শ্রেণীতে অধ্যয়নরত আছেন, সদস্যকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থী হতে হবে এবং নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ পর্যন্ত যাদের বয়স ৩০ বছরের অধিক নয়। সরকারি, বেসরকারি কিংবা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে কমর্রত কেউ নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবে না। প্রত্যেক হলে একটি করে নির্বাচন কেন্দ্র থাকবে এবং যে ছাত্র যেই হলের সাথে সংযুক্ত সে সেই হলের নির্বাচন কেন্দ্রে ভোট দিবে।

এছাড়াও জাকসু গঠনতন্ত্র বাংলায় প্রণয়ন করার প্রস্তাব করেছে জাবি শাখা ছাত্রলীগ। জাকসুর কাঠামোতে পর্যাপ্ত পরিমাণে নারী প্রতিনিধি নিশ্চিত করার দাবিও জানিয়েছে তারা। পাশাপাশি একাডেমিক ক্যালেন্ডারে জাকসু নির্বাচনের নির্দিষ্ট সময়ের বিষয়টি গঠনতন্ত্রে সংযোজনের দাবি জানিয়েছে ছাত্রলীগ।

জাকসু গঠনতন্ত্রে উল্লেখিত সম্পাদকীয় (সহ-সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহ-সাধারণ সম্পাদক, সমাজসেবা সম্পাদক, কমনরুম সম্পাদক (পুরুষ), কমন রুম সম্পাদক (নারী), সাহিত্য সম্পাদক, সামাজিক চিত্তবিনোদন সম্পাদক, নাট্য সম্পাদক, ক্রীড়া সম্পাদক ও সহ ক্রীড়া সম্পাদক) পদগুলোর পাশাপাশি সময় ও চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে শাখা ছাত্রলীগ নতুন কিছু সম্পাদকীয় পদ তৈরি করার প্রস্তাব রেখেছে।

পদগুলো হল: স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিষয়ক সম্পাদক, ছাত্র পরিবহন বিষয়ক সম্পাদক, ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক, ক্যাফেটেরিয়া বিষয়ক সম্পাদক, প্রচার, গ্রন্থণা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক, গ্রন্থাগার ও সেমিনার বিষয়ক সম্পাদক, বিজ্ঞান, তথ্যপ্রযুক্তি ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক, পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক, স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ২৭ বছর বন্ধ থাকার পর জাকসু প্রতিনিধি নির্বাচনের লক্ষ্যে নতুন করে কার্যক্রম শুরু হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের শেষ দিনে নির্বাচন কমিশন গঠনের মধ্য দিয়ে জাকসু নির্বাচনের প্রথম চ্যালেঞ্জ পার করলেন উপাচার্য ড. ফারজানার প্রশাসন।