ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪ | ২ শ্রাবণ ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বহিষ্কৃত হয়েও পরীক্ষায় বসছে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থী

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
🕐 ৭:২১ অপরাহ্ণ, জুন ০৫, ২০২৪

বহিষ্কৃত হয়েও পরীক্ষায় বসছে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থী

ইট দিয়ে জুনিয়রকে হামলার ঘটনায় সাময়িক বহিষ্কৃত হয়েও পরীক্ষায় বসছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মাসুদ মোল্লা। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সেই বিভাগে চলমান মাস্টার্সের মিডটার্ম পরীক্ষার ৬ টির মধ্যে তিনটিতে পরীক্ষা অংশগ্রহণ করেছে সে।

 

কিন্তু গত ১৬ মে রেজিস্ট্রার সাক্ষরিত এক নোটিশে তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক সকল কার্যক্রম থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

গত ১৪ মে বিদ্যুৎ না থাকায় অনেকের মতো সঞ্জয় দাস কেন্দ্রীয় পাঠাগারের পাশের টিনশেড ঘরের বারান্দায় বসে পড়ছিল। সেখানে একটা ছেলে আরেকটা মেয়ে উচ্চস্বরে কথা বলতে থাকায় সবার অসুবিধা হওয়ায় সঞ্জয় দাস সেই মেয়েকে আস্তে কথা বলার জন্য অনুরোধ করে। এতে পাশে থাকা মাসুদ মোল্লা তেড়ে আসে এবং গালাগালি শুরু করে। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে মাসুদ মোল্লা সঞ্জয় দাসকে ইট দ্বারা আঘাত করে। তিনি তখন জ্ঞান হারান। পরে তার সহপাঠীরা তাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। চোখের উপরে গুরুতর আঘাত পাওয়ায় সেখানে পাঁচটি সেলাই দেওয়া হয় । এই ঘটনার প্রেক্ষিতে মাসুদ মোল্লাকে সাময়িক বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

হামলায় আহত শিক্ষার্থী সঞ্জয় দাস বলেন," আমি হামলায় চোখে গুরুতর আঘাত পেয়ে পরীক্ষার জন্য ভালো পড়াশোনা করতে পারছি না। অথচ আমাকে হামলাকারী মাসুদ বহিষ্কৃত হয়েও পরীক্ষা দিচ্ছে। প্রশাসনের দায়িত্বের অবহেলার কারণে আজ ২৩ দিনেও আমি বিচার পাইনি। প্রশাসনের কাছে আমার প্রশ্ন একজন বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী কিভাবে পরীক্ষায় বসতে পারে? আমি প্রশাসনের কাছে দাবি জানায় যতদ্রুত সম্ভব তার বিচার করে তাকে যেন শাস্তি দেওয়া হয়।

এই বিষয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি ড.হাসিবুর রহমান বলেন,বহিষ্কার হয়েছে বিষয়ে আমি আগে কোনো কাগজ পাইনি। আমাকে একটু আগে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী দিন থেকে সে পরীক্ষা দিতে পারবে না।"

জানতে চাইলে রেজিস্ট্রার মো. দলিলুর রহমান বলেন," দেখি আমরা, সে কীভাবে পরীক্ষা দিতেছে চেয়ারম্যানের সাথে আমার কথা বলতে হবে। বহিষ্কারের নোটিশ রেজিস্ট্রার কর্তৃক চেয়ারম্যানের কাছে না দেওয়ার অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযোগটি থাকার কথা না। এখন সেটা পাস হয়েছে কিনা দেখতে হবে আমাদেরকে।

 
Electronic Paper