নোটিশের প্রতিবাদে মধ্যরাতে উত্তাল খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়

ঢাকা, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

নোটিশের প্রতিবাদে মধ্যরাতে উত্তাল খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০২২

নোটিশের প্রতিবাদে মধ্যরাতে উত্তাল খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) অপরাজিতা হলের আবাসিক ছাত্রীদের ‘রান্নার সরঞ্জাম’ জব্দের নোটিশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ছাত্রীরা প্রথমে হলের ভেতরের তালা ভেঙে বাইরে আসেন। পরে হলের গেট খুলে প্রতিবাদ শুরু করেন। রাত সাড়ে ১২টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিক্ষোভ চলছিল।

 

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, হলের প্রোভোস্ট, সহকারী প্রোভোস্ট ছাত্রীদের সাথে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে ধমক দেওয়া থেকে শুরু করে সিট বাতিলের হুমকি দেন। মঙ্গলবার এক ছাত্রী ওই হলে বটি দিয়ে গলা কাটার চেষ্টা করলেও হাসপাতালে নিয়ে গেলে বেঁচে যান।

এর পরিপ্রেক্ষিতে ছাত্রীদের রান্না করার সরঞ্জাম জব্দ করার নিদের্শ দেয় হল কর্তৃপক্ষ। নির্দেশনায় বলা হয়, ইলেকট্রনিক ডিভাইস, রাইস কুকার, হিটারসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম না সরালে, যার রুমে এগুলো পাওয়া যাবে তার সিট বাতিল হয়ে যাবে।

শিক্ষার্থীরা আরও জানান, কিছুদিন আগে ফেসবুকে কমেন্ট করাকে কেন্দ্র করে এক ছাত্রীকে ৪৫ মিনিট ধরে ধমক দেয় এবং শাসায় হল কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া ছাত্রীরা বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে জানালে সমস্যা সমাধান না করে উল্টো শাসানো হয়।

ছাত্রীরা অভিযোগ করে বলেন, সহকারী প্রভোস্ট ছাত্রীদের হুমকি দিয়ে বলেছেন, ‘হল তোমাদের সুযোগ, অধিকার নয়। যার সমস্যা সে হল থেকে নেমে যাও।’ এ কারণে বিক্ষোভ শুরু করেছেন তারা।

অপরাজিতা হলের সহকারি প্রভোস্ট ফাল্গুনী আক্তার বলেন, ছাত্রীরা কী কারণে বিক্ষোভ করছে বলেনি। আমরা এখানে এসেছি, বিষয়টি নিয়ে তাদের সঙ্গে আলোচনা করব।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী খাদিজা আক্তার তরকারি কাটার বটি দিয়ে গলা কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 
Electronic Paper