পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

ঢাকা, সোমবার, ৬ এপ্রিল ২০২০ | ২২ চৈত্র ১৪২৬

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়

ফাতেমা বেগম তমা ৮:৪৯ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০২০

print
পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

প্রশ্ন : বাংলাদেশের ঐতিহাসিক নিদর্শনগুলোর প্রতি আমাদের শ্রদ্ধাশীল হওয়া প্রয়োজন কেন? উত্তর : বাংলাদেশের পুরোটাই যেন প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের এক উন্মুক্ত জাদুঘর। বাংলাদেশের সর্বত্র ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে ঐতিহাসিক গুরুত্ববহনকারী নানা নিদর্শন। এসব নিদর্শন আমাদের অতীত সভ্যতা ও সংস্কৃতির পরিচয় বহন করে। আমরা এসব ঐতিহ্যে গৌরব বোধ করি। এসব নিদর্শন আমাদের জাতীয় ইতিহাস, ঐতিহ্যকে ধারণ ও লালন করে। তাই এগুলোর প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল হব। আমরা এ স্থান পরিদর্শন করব, জানব ও এদের সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ করব। কারণ এগুলো আমাদের অতীত ঐতিহ্যের পরিচয় বহন করছে।

প্রশ্ন : ঐতিহাসিক স্থানগুলো পরিদর্শনের কারণগুলো লিখ।

উত্তর : প্রাচীনকাল থেকেই বাংলাদেশের বর্তমান ভূখণ্ডে উন্নত সভ্যতা গড়ে উঠেছিল। তার কিছু কিছু ধ্বংসাবশেষ এখনো বিভিন্ন অঞ্চলে রয়ে গেছে। এগুলোর মধ্যে বগুড়ার মহাস্থানগড়, নওগাঁর পাহাড়পুর, কুমিল্লার ময়নামতিতে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নিদর্শন আবিষ্কৃত হয়েছে। তাছাড়া নারায়ণগঞ্জের অদূরে সোনারগাঁ ও পানাম নগরী এবং ঢাকার লালবাগের কেল্লা, নরসিংদীর উয়ারী বটেশ্বর, বাগেরহাটের ষাট গম্বুজ মসজিদ এ দেশে সুলতানি ও মোগল শাসনামলের বহু মূল্যবান নিদর্শন বহন করছে।

বাংলাদেশের পুরোটাই যেন প্রতœতাত্ত্বিক নিদর্শনের এক উন্মুক্ত জাদুঘর। এ দেশের সর্বত্রই ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে ঐতিহাসিক গুরুত্ববহনকারী নানা নিদর্শন। এসব নিদর্শন আমাদের অতীত সভ্যতা ও সংস্কৃতির পরিচয় বহন করে। আমরা এসব ঐতিহ্যে গৌরব বোধ করি। এসব নিদর্শন আমাদের জাতীয় ঐতিহ্য, ইতিহাস কৃষ্টি ও সংস্কৃতিকে ধারণ, লালন করে। এগুলো আমাদের গর্ব। তাই আমরা পারিবারিকভাবে বা শিক্ষকদের তত্ত্বাবধানে এসব নিদর্শন সম্পর্কে জানব ও এগুলো পরিদর্শন করব। এগুলো পরিদর্শন করলে-

* আমাদের বাস্তব অভিজ্ঞতা অর্জিত হবে

* জ্ঞান সমৃদ্ধ হবে। * আমাদের জাতীয় ইতিহাস, ঐতিহ্য, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বাড়বে। * অতীতের সংস্কৃতি ও সভ্যতা সম্পর্কে জানা যাবে। সুতরাং, ওপরের কারণে আমরা প্রাচীন নিদর্শনগুলো পরিদর্শন করব ও সেগুলোকে সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

প্রশ্ন : ঐতিহাসিক নিদর্শনগুলো আমাদের সংরক্ষণ করা উচিত কেন?

উত্তর : বাংলাদেশ প্রাচীন সভ্যতার পীঠস্থান। যুগে যুগে কালে কালে অনেক সমৃদ্ধ সভ্যতার জন্ম হয়েছে এ প্রাচীন জনপদে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো বগুড়ার মহাস্থানগড়, নওগাঁর পাহাড়পুর, কুমিল্লার ময়নামতি, সোনারগাঁ, পানাম নগরী, লালবাগ কেল্লা, নরসিংদীর উয়ারী বটেশ্বর।

এসব নিদর্শন এ দেশের বিভিন্ন আমলের সুপ্রাচীন ঐতিহ্যকে ধারণ ও লালন করছে। আমরা এসব নিদর্শন থেকে অতীতের সংস্কৃতি ও সভ্যতা সম্পর্কে জানতে পারি। বাংলাদেশের পুরোটাই যেন প্রতœতাত্ত্বিক নিদর্শনের এক উন্মুক্ত জাদুঘর। এসব ঐতিহাসিক স্থান সংরক্ষণ করলে এগুলো পরিদর্শন করে আমরা বাস্তব জ্ঞান অর্জন করতে পারব। এগুলো সংরক্ষণ করলে এ সম্পর্কে আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বাড়বে। এসব নিদর্শন সংরক্ষণ করলে আজীবন এগুলো সুপ্রাচীন অতীতের জীবন্ত কিংবদন্তি হয়ে বেঁচে থাকবে আমাদের মাঝে, এতে সমৃদ্ধ হবে আমাদের ইতিহাস ও সংস্কৃতি।

ফাতেমা বেগম তমা, সিনিয়র শিক্ষক

বর্ণমালা আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজ, ঢাকা।