পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩১ ভাদ্র ১৪২৬

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

বাংলা

আলিফ লায়লা ৫:৩৮ অপরাহ্ণ, জুন ০১, ২০১৯

print
পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

শব্দদূষণ
- সুকুমার বড়ুয়া
১। নিচের কবিতাংশ পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
শহরের পাতি কাক ডাকে ঝাঁকে ঝাঁকে
ঘুম দেয়া মুশকিল হর্নের হাঁকে।
সিডি চলে, টিভি চলে, বাজে টেলিফোন
দরজায় বেল বাজে, কান পেতে শোন।
গলিপথে ফেরিঅলা হাঁকে আর হাঁটে
ছোটদের হইচই ইশকুল মাঠে।
পল্লির সেই সুরে ভরে যায় মন
শহুরে জীবন জ্বালা-শব্দদূষণ।

ক) শহরের কোন কোন জিনিস শব্দদূষণ ঘটায়?
খ) কবিতাংশের মূলভাব লেখ।
গ) ‘শহুরে জীবন জ্বালা-শব্দদূষণ।’ লাইনটি ব্যাখ্যা কর।

১নং প্রশ্নের উত্তর
১। ক) উত্তর : শহুরে জীবনে অনেক উপাদানই রয়েছে যা শব্দদূষণ ঘটায়।
শহরের অলিতে গলিতে প্রচুর পরিমাণে পাতি কাক সারাক্ষণ কা কা শব্দে ডাকতে থাকে। এই কাকের ডাক, গাড়ির হর্নের শব্দ, সিডি, টিভি, টেলিফোন এমনকি দরজার কলিং বেলের প্রচণ্ড শব্দ শব্দদূষণের অন্যতম কারণ। এছাড়া গলি পথে ফেরিঅলার চিৎকার, ছোটদের স্কুলে হইচই সবকিছুই অতিরিক্ত শব্দের কারণ। শহরের জীবনে এসব উপদানগুলোই শব্দদূষণ ঘটায়।

১। খ) উত্তর : শহরের অলিতে গলিতে প্রচুর পরিমাণে পাতি কাক সারাক্ষণ কা কা শব্দে ডাকতে থাকে। এই কাকের ডাক, গাড়ির হর্নের শব্দ, সিডি, টিভি, টেলিফোন এমনকি দরজার কলিং বেলের প্রচণ্ড শব্দ শব্দদূষণের অন্যতম কারণ।
এছাড়া গলিপথে ফেরিঅলার চিৎকার, ছোটদের স্কুলে হইচই সবকিছুই অতিরিক্ত শব্দের কারণ। শহরের জীবনে এই শব্দদূষণের কারণে আমাদের শারীরিক ক্ষতি হয়। তাই এই শব্দদূষণকে শহরের জীবনের ‘জ্বালা’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।
পক্ষান্তরে, পল্লি জীবনের প্রাকৃতিক শব্দগুলো আমাদের মনকে মুগ্ধ করে দেয়।

১। গ) উত্তর : ‘শহুরে জীবন জ্বালা-শব্দদূষণ।’ লাইনটি দ্বারা মাত্রাতিরিক্ত শব্দের কারণে শহুরের অতিষ্ঠ জীবনের কথা বোঝানো হয়েছে।
শহরের জীবনে অতিরিক্ত শব্দ মানুষের জীবন থেকে শান্তি কেড়ে নেয়।

শহরের অলিতে গলিতে প্রচুর পরিমাণে পাতি কাক সারাক্ষণ কা কা শব্দে ডাকতে থাকে। এই কাকের ডাক, গাড়ির হর্নের শব্দ, সিডি, টিভি, টেলিফোন এমনকি দরজার কলিং বেলের প্রচণ্ড শব্দ শব্দদূষণের অন্যতম কারণ। এছাড়া গলিপথে ফেরিঅলার চিৎকার, ছোটদের স্কুলে হইচই সবকিছুই অতিরিক্ত শব্দের কারণ। শহরের জীবনে এই শব্দদূষণের কারণে আমাদের শারীরিক ক্ষতি হয়। তাই এই শব্দদূষণকে শহরের জীবনের ‘জ্বালা’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

সিনিয়র শিক্ষক
সাতারকুল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা।