পর্যাপ্ত ত্রাণ বিতরণের উদ্যোগ নিন

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০২০ | ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

পর্যাপ্ত ত্রাণ বিতরণের উদ্যোগ নিন

সম্পাদকীয় ৫:০৬ অপরাহ্ণ, মে ০৫, ২০২০

print
পর্যাপ্ত ত্রাণ বিতরণের উদ্যোগ নিন

করোনাভাইরাসের ছোবলে বেশি অসহায় হয়ে পড়েছে খেটেখাওয়া, নিম্নবিত্ত মানুষগুলো। যদিও সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে অনেকেই ত্রাণ সহায়তা দিলেও তা চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল বলে জানা গেছে। বরাদ্দ হলেও অনেক জায়গায় তা ঠিকমত পৌঁছাচ্ছে না সে ত্রাণ। তাই তো ত্রাণ বঞ্চিত হয়ে অসহায় মানুষগুলো রংপুর, রাজশাহী ও মাদারীপুরে বিক্ষোভ করেছেন। গতকাল খোলা কাগজে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, পর্যাপ্ত ত্রাণের দাবিতে সড়ক অবরোধ ও রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) কার্যালয় ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকসহ নিম্নআয়ের শত শত মানুষ। গত সোমবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত রংপুর সিটি করপোরেশনের সামনে বিক্ষোভ মিছিল চলে।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, মহামারি করোনা মোকাবেলায় লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন ধরে তারা বেকার হয়ে আছেন। সরকারি-বেসরকারিভাবে তেমন ত্রাণ সহায়তা পাচ্ছেন না। এতে হাত গুটিয়ে বসে থাকায় পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বাধ্য হয়ে সড়কে নেমেছেন। দিনমজুর ও শ্রমিকরা জানান, পাঁচ কেজি চাল আর সামান্য তেল ডাল দিয়ে এক মাস সংসার চালানো অসম্ভব। ঘরে রাখতে হলে পর্যাপ্ত ত্রাণ সহায়তা দিতে হবে। অন্যথায় উপার্জনের বাহন নিয়ে সড়কে নামার ব্যবস্থা করে দিতে হবে। বিক্ষোভকারীরা সিটি করপোরেশনের ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করলে সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাসহ সিটির বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা উপস্থিত হন। দাবি-দাওয়া মেটানোর আশ্বাস দেন মেয়র।

রাজশাহী নগরীতে ত্রাণের দাবিতে প্রধান সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করেছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। নগরীর ২৪ ও ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের পদ্মা নদী তীরবর্তী এলাকায় শতাধিক পরিবারের সদস্যরা সোমবার সকালে আন্দোলনে অংশ নেয়। তাদের দাবি, মেয়র পর্যাপ্ত ত্রাণ দিলেও তা ওয়ার্ড পর্যায়ে বিতরণে দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি করা হচ্ছে। খবর পেয়ে জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) ২৪ ও ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের নদী তীরবর্তী তালাইমারি থেকে পঞ্চবটী পর্যন্ত এলাকার অধিকাংশ নিতান্তই দরিদ্র গোছের। পেশায় তারা অটো বা রিকশাচালক, নয়ত দিনমজুর। দীর্ঘ এক মাস ধরে কর্মহীন সময় কাটাচ্ছে। সংগ্রহে থাকা সামান্য সঞ্চয়টুকুও শেষ হয়েছে অনেকের।

মাদারীপুরের কালকিনিতে এক ইউপি চেয়ারম্যান এবং সদস্যের বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণের অনিয়মের প্রতিবাদে এবং ত্রাণের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। গত রোববার সন্ধ্যায় প্রায় ৫ শতাধিক লোকজনের অংশগ্রহণে উপজেলার সাহেব রামপুর এলাকার ক্রোকিরচর-রমজানপুর সড়কের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের হাওলাদার বাড়ির সামনে ঘণ্টাব্যাপী এ কর্মসূচি পালন করা হয়। ত্রাণ বঞ্চিতদের অভিযোগ, উপজেলার সাহেব রামপুর এলাকার ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান সেলিম ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইমরান হাওলাদার মিলে দুর্নীতির মাধ্যমে সরকারি ত্রাণ প্রকৃত দরিদ্র মানুষের মাঝে বিতরণ না করে তাদের ব্যক্তিগত লোকজন ও বিত্তশীলদের মাঝে বিতরণ করে আসছেন। এমন অভিযোগ পুরনো। অনেক জায়গাতেই এমনটা হয়েছে। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সংশ্লিষ্টরা পর্যাপ্ত ত্রাণ বিতরণ করে ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াবেন বলেই আমাদের প্রত্যাশা।