গ্যাস পাওয়ার সম্ভাবনা

ঢাকা, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গ্যাস পাওয়ার সম্ভাবনা

সুদূরপ্রসারী উদ্যোগ জরুরি

সম্পাদকীয়-১ ৯:৩১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৭, ২০১৯

print
গ্যাস পাওয়ার সম্ভাবনা

গ্যাস আধুনিক সভ্যতার এক অপরিহার্য অনুষঙ্গ। প্রাকৃতিক সম্পদ গ্যাসের ওপর নির্ভর করেই অনেকাংশে সভ্যতার চাকা ঘুরে থাকে। আমাদের জীবন-জীবিকা থেকে শুরু করে দৈনন্দিন জীবনের জন্যও গ্যাসের ভূমিকা অতুলনীয়। যে কারণে গ্যাস উৎপাদন ও সীমিত গ্যাস সম্পদের ওপর নির্ভর করে কীভাবে দেশের চাহিদা মেটানো যায় সেটি নিয়ে আমাদের ভাবতে হয়।

প্রাকৃতিকভাবে গ্যাসের উৎস সন্ধান আমাদের রাষ্ট্রীয় পরিকল্পনার অংশ। যে কারণে প্রায়ই বিভিন্ন জায়গায় গ্যাস পাওয়ার খবর পেলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সে গ্যাস সংরক্ষণে তৎপর হয়ে ওঠে। এমন প্রাকৃতিক উৎস থেকে গ্যাস পাওয়া নিঃসন্দেহে সৌভাগ্যের বিষয়। তবে গ্যাস প্রাপ্তির পর সে গ্যাসের সংরক্ষণ ও ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনার অভাব প্রায় সময়েই ফুটে উঠেছে। তাই গ্যাসের সন্ধান যেমন আমাদের আনন্দিত করে, তেমনি প্রাপ্ত গ্যাসের ব্যবস্থাপনার বিষয়ে স্বচ্ছতার ঘাটতি থাকার সম্ভাব্য দিকটিও উদ্বেগ জাগায়।

পত্রিকায় প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়, দেশের কয়েকটি জেলায় প্রাকৃতিক গ্যাসের খনি পাওয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছেন জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। রাজধানীর একটি হোটেলে দুই দিনব্যাপী এলএনজি সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান। নসরুল হামিদ বলেন, এলএনজির অধিক মূল্য বড় একটা চ্যালেঞ্জ। এ ছাড়া বিশ্ব বাজারে এর দাম ওঠানামা করে। সেজন্য এলএনজির পাশাপাশি দেশীয় মজুদ উত্তোলনেও গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার। বৃহত্তর ভোলা থেকে গ্যাস আসছে। ময়মনসিংহ বিভাগে গ্যাসের একটা সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছি। মাদারীপুরেও গ্যাসের একটা মজুদ বা সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। এ প্রকল্পগুলো চালু হলে তা জোগান বাড়াবে। প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে পাইপলাইনে গ্যাস আমদানির পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি।

দেশে গত এক বছর ধরে প্রতিদিন ৫৫০ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি আমদানি হচ্ছে জানিয়ে জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে ক্রমবর্ধমান শিল্পায়নের ফলে গ্যাসের চাহিদাও দিন দিন বাড়ছে। এই চাহিদা পূরণে বিদেশ থেকে এলএনজি আমদানির পাশাপাশি দেশে গ্যাসের অনুসন্ধান চলছে। আমরা গ্যাস সম্পদ ব্যবহারের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতার বিষয়টি দেখতে চাই। কেননা সম্প্রতি গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় গ্যাস বিপণনের ক্ষেত্রে যে অব্যবস্থাপনা রয়েছে, সেটি প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। তাই সরকারের পক্ষ থেকে প্রাকৃতিক সম্পদ গ্যাসের যথাযোগ্য বণ্টনের বিষয়টি নিশ্চিত করা দরকার।