সূচকের সঙ্গে বাড়লো লেনদেন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

সূচকের সঙ্গে বাড়লো লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক ৯:২০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮

print
সূচকের সঙ্গে বাড়লো লেনদেন

বড় দরপতনের এক কার্যদিবস পর সোমবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচকের বড় উত্থান হয়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণও।

মূল্যসূচক ও লেনদেনের পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৯৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে কমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ১১০টি তিষ্ঠান। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের এমন দাম বাড়ায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৩৪ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ২৪৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

অপর দুটি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক আগের দিনের তুলনায় ৮ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২১৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৭ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৬০ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৪২ কোটি ৮০ লাখ টাকার শেয়ার। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৩৭১ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৭১ কোটি ৯ লাখ টাকা।

টাকার অংকে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে কেপিসিএলের শেয়ার। এদিন কোম্পানিটির ২০ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা মুন্নু সিরামিকের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৯ কোটি ২২ লাখ টাকার। আর ১৩ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ইনটেক লিমিটেড।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- পেনিনসুলা চিটাগাং, সায়হাম টেক্সটাইল, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, নূরানী ডাইং, বিবিএস কেবলস, গ্রামীণ ফোন এবং সামিট পাওয়ার।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স আজ ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ৭২৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৩ কোটি ৫৬ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট। লেনদেন হওয়া ২২৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বেড়েছে ১২০টির। বিপরীতে কমেছে ৮৩টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দাম।