শেয়ারবাজারে উল্লম্ফন

ঢাকা, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ৬ বৈশাখ ১৪২৮

শেয়ারবাজারে উল্লম্ফন

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ০৭, ২০২১

print
শেয়ারবাজারে উল্লম্ফন

লকডাউনের খবরের আতঙ্কে শেয়ারবাজারে ধস নামলেও লকডাউনের মধ্যে দেশের শেয়ারবাজারে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। চলমান লকডাউনের দুইদিনেই শেয়ারবাজারে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার পাশাপাশি মূল্য সূচকের বড় উত্থান হয়েছে।

শেয়ারবাজারে এই ইতিবাচক প্রভাব পড়ায় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলামের সাহসী নেতৃত্বের প্রশংসা করছেন বিনিয়োগকারীরা। তারা বলছেন, বিএসইসির চেয়ারম্যানের ভূমিকার কারণেই লকডাউনের মধ্যে শেয়ারবাজারে লেনদেন চলমান রয়েছে। লেনদেন চালু রাখতে না পারলে বাজারে নেতিবাচক বার্তা যেত এবং বাজার খারাপ হতো। তারা আরও বলছেন, লেনদেন চালু রাখার পাশাপাশি মার্জিন ঋণের বিষয়েও বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএসইসি। মার্জিন ঋণের হার বাড়িয়ে দেয়ায় বাজারে এখন তার ইতিবাচক প্রভাব দেখা যাচ্ছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লকডাউনের দ্বিতীয় দিন গতকাল মঙ্গলবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার মধ্য দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। সময়ের সঙ্গে দাম বাড়ার তালিকা বড় হতে থাকে। ফলে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতাও বাড়তে থাকে। এতে দুই ঘণ্টার লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১০৩ পয়েন্টে বেড়ে ৫ হাজার ২৮১ পয়েন্টে উঠে এসেছে। আগের দিন এই সূচকটি বাড়ে ৮৮ পয়েন্ট। অর্থাৎ লকডাউনের দুইদিনে ডিএসইর প্রধান সূচক বেড়েছে ১৯২ পয়েন্ট।

প্রধান মূল্য সূচকের পাশাপাশি বড় উত্থান হয়েছে বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচকের। আগের দিনের তুলনায় সূচকটি ৪৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৯৮৮ পয়েন্টে উঠে এসেছে। লকডাউনের প্রথম দিনও এই সূচকটি ৪৩ পয়েন্ট বাড়ে। এ হিসাবে দুই দিনে সূচকটি বাড়ল ৮৬ পয়েন্ট। ডিএসইর অপর সূচক ডিএসই শরিয়াহ আগের দিনের তুলনায় ২১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২০৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

ইসলামী শরিয়াহ ভিত্তিতে পরিচালিত কোম্পানি নিয়ে গঠিত এই সূচকটি আগের দিন বাড়ে ১৬ পয়েন্ট। এ হিসাবে লকডাউনের দুইদিনে সূচকটি বাড়ল ৩৭ পয়েন্ট। সূচকের বড় উত্থানের পাশাপাশি লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ডিএসইতে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান।

দিনের লেনদেন শেষে ২৪০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। আর ৯১টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।