৩৩৫ কোটি টাকার ৪ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৭ চৈত্র ১৪২৬

৩৩৫ কোটি টাকার ৪ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক ৯:০৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৯, ২০২০

print
৩৩৫ কোটি টাকার ৪ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

পুরাতন ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, তুলাই এবং পুনর্ভবা নদীর নাব্যতা উন্নয়ন ও পুনরুদ্ধারের জন্য পাঁচটি লটে ড্রেজিং (খনন) কাজের ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। ১০ প্রতিষ্ঠান ৩৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে এসব নদী খননের কাজ পেয়েছে। গত বুধবার সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা বৈঠক প্রকল্পগুলো অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। এ সময় শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ হুমায়ূন ও মন্ত্রিপরিষদের অতিরিক্ত সচিব নাসিমা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় সাতটি প্রস্তাবে সায় দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে নৌ মন্ত্রণালয়ের ছয়টি প্রস্তাব। পুরাতন ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, তুলাই এবং পুনর্ভবা নদীর নাব্যতা উন্নয়ন ও পুনরুদ্ধারে পাঁচটি লটে ড্রেজিং কাজ ১০ ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হয়েছে।

প্রকল্পের আওতায় লট-১ এর ডেজিং কার্যক্রম করবে নবারুণ ট্রেডার্স লিমিটেড ও আনোয়ার খান মর্ডান ড্রেজিং করপোরেশন। এতে ব্যয় হবে ৪৪ কোটি ৭৯ লাখ ৫৭ হাজার টাকা। একই প্রকল্পের আওতায় লট-২ এ ডেজিং কার্যক্রম করবে ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিং প্রাইভেট লিমিটেড, প্রোগ্রেসিভ ড্রেজিং লিমিটেড ও ভিনচেন কনসালটেন্সি লিমিটেড। এতে ব্যয় হবে ৩৫ কোটি ৭৬ লাখ ৩৬ কোটি ৫১৯ টাকা। লট-৩ কাজ পেয়েছে মায়ার এসএস। এতে ১৪২ কোটি ৪৪ লাখ ৫৯ হাজার ৪০০ টাকা ব্যয় হবে। লট-৪ এর কাজ পেয়েছে নভারুণ ট্রেডার্স লিমিটেড ও বেঙ্গল স্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড। এতে ৬৩ কোটি ৩৪ লাখ ৪৭ হাজার টাকা ব্যয় হবে। লট-৫ এর ড্রেজিং কাজ পেয়েছে ওরিয়েন্ট ট্রেডিং অ্যান্ড বিল্ডার্স লিমিটেড ও ওয়াহিদ কনস্ট্রাকশন লিমিটেড। এতে ব্যয় হবে ৪৮ কোটি ৯১ লাখ পাঁচ হাজার টাকা। বৈঠক অনুমোদিত অন্যান্য প্রস্তাবগুলো হলো, আরবান রেজিলিয়েন্স প্রকল্পেরে আওতায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের জন্য ন্যাশনওয়াইড ডিজিটাল মোবাইল রেডিও নেটওয়ার্ক স্থাপন ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। চায়নার হাইতিরা কমিউকেসন্স করপোরেশন ১১৭ কোটি ৪৫ লাখ টাকায় এ কাজ করবে।

এছাড়া চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের অধীনে বার্থ অপারেটর নিয়োগে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। পাঁচ বছরের জন্য বার্থ অপারেটর নিয়োগে ৮৫ কোটি ২৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকায় তিনটি প্রতিষ্ঠান রুহুল আমিন অ্যান্ড ব্রাদাস, এ ডব্লিউ খান অ্যান্ড কোং এবং কসমস এন্টারপ্রাইজ এ কাজ করবে। এদিকে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় আগামী জুলাই থেকে ৫০০ পিপিএম (০.০৫%) এর পরিবর্তে ৫০ পিপিএম (০.০০৫%) সালফার মানমাত্রার ডিজেল আমদানির নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয় বলে জানান অর্থমন্ত্রী।