বাড়ছে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতা

ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬

বাড়ছে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতা

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০২০

print
বাড়ছে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতা

মুজিববর্ষ উপলক্ষে এ বছর খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতা বাড়ছে। খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজি মূল্যে পাঁচ মাস খাদ্য বিতরণ করা হয়। মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১০ টাকা কেজি দরে খাদ্য বিতরণ দুই মাস বাড়িয়ে সাত মাস করা হয়েছে। খাদ্য মন্ত্রণালয়ের বাজেট ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় সারা দেশের ৫০ লাখ হতদরিদ্র পরিবারকে ১০ টাকা দরে (প্রতি কেজি) প্রতি মাসে ৩০ কেজি চাল বিতরণ করে। মার্চ, এপ্রিল, সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর এই পাঁচ মাস চাল বিতরণ করা হয়। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের বাজেট ব্যবস্থাপনা কমিটি আরও দুই মাস এ চাল বিতরণের সময় বৃদ্ধি করে সাত মাস করে। এজন্য সরকারকে আরও অতিরিক্ত ২৮৫ কোটি ২৫ লাখ ২২ হাজার টাকা বাজেট বাড়াতে হবে।

চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরে পরিচালন বাজেট থেকে আরও ২০ কোটি ৩৩ লাখ টাকা খরচ করতে হবে। সবমিলিয়ে পরিচালন ব্যয় বাড়বে ৩০৫ কোটি ৮৫ লাখ ২২ হাজার টাকা। বৃদ্ধি পাওয়া পুরো অর্থই আসবে উন্নয়ন বাজেট থেকে। যা সংশোধিত বাজেট হিসাবে অনুমোদন হবে। ২০২০-২১ বাজেট প্রাক্কলন ও ২০২১-২২ এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রক্ষেপণসহ ২০১৯-২০ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট বরাদ্দ চূড়ান্তকরণের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত অর্থ মন্ত্রণালয়ের বাজেট ব্যবস্থাপনা সভায় এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

চলতি ২০১৯-২০ বছরের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির মধ্যে যোগ হচ্ছে গ্রাম পুলিশ। খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় এতদিন শুধু হতদরিদ্র মানুষ ১০ টাকার চাউল পেলেও এবার প্রথমবারের মতো যোগ হচ্ছে গ্রাম পুলিশ। সারা দেশের চার হাজার ৪৭১টি ইউনিয়নের ৪৪ হাজার ৭১০ জন গ্রাম পুলিশ ও দফাদার যোগ হচ্ছে।