৪৮ বছরে ৬৬৫ গুণ

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৬ আশ্বিন ১৪২৬

৭৮৬ কোটি থেকে ৫ লাখ ২৩ হাজার কোটি

৪৮ বছরে ৬৬৫ গুণ

নিজস্ব প্রতিবেদক ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, জুন ১২, ২০১৯

print
৪৮ বছরে ৬৬৫ গুণ

দেশের ইতিহাসে ৪৯তম বাজেট পেশ করা হবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার। ১৯৭২ সালের ৩০ জুন স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম বাজেট পেশ করা হয়। বঙ্গবন্ধু সরকারের তৎকালীন অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদ ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করেন। ৪৮ বছর পর সেই বাজেটের আকার দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকা। প্রথম বাজেটের চেয়ে ৬৬৫ গুণ বড় এ বাজেট।

স্বাধীনতার পর নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে সমৃদ্ধির পথে এগিয়েছে দেশের অর্থনীতি। আর সময়ের প্রয়োজনেই প্রতিবারই লাফিয়ে বেড়েছে বাজেটের আকার। ১৯৭৪ সালে প্রথমবারের মতো বাজেট ১ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায়। আর ১৯৮৮ সালে বাজেটের আকার দাঁড়ায় ১০ হাজার ৫৬৫ কোটি টাকায়। ২০০৩ সালে ঘোষিত ৩১তম বাজেট প্রথমবারের মতো ৫০ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায়। অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের পেশ করা ওই বাজেট ছিল ৫১ হাজার ৯৮০ কোটি টাকার। ৫ বছর পর ২০০৮-৯ অর্থবছরে যা ১ লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায়।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অর্থ উপদেষ্টা মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম পেশ করেন এই বাজেট। ২০১১ সালের ৯ জুন পেশ করা হয় ৪১তম বাজেট, যার আকার ছিল ১ লাখ ৬৩ হাজার কোটি টাকা এবং ২০১২ সালের ৭ জুন উপস্থাপিত হয় ৪২তম বাজেট। মহাজোট সরকারের গত মেয়াদের ৫ম ও শেষ বাজেট দুই লাখ কোটি টাকা অতিক্রম করে। এর আকার ছিল ২ লাখ ২২ হাজার ৪৯১ কোটি টাকা। দ্বিতীয় মেয়াদের মহাজোট সরকারের প্রথম বাজেট দেওয়া হয় ২০১৪ সালের ৫ জুন। যার আকার ছিল ২ লাখ ৫০ হাজার ৫০৬ কোটি টাকা।

এই পরিমান ২০১৫ সালে এসে দাঁড়ায় ২ লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকায়। এরপর ২০১৬ সালে ঘোষিত বাজেটের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩ লাখ ৪০ হাজার ৬০৫ কোটি টাকা। অগ্রগতির ধারাবাহিকতায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট পাস করা হয়। সর্বশেষ ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য আজ পাঁচ লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকার বাজেট পেশ হচ্ছে, যা দেশের ইতিহাসের প্রথম বাজেটের চেয়ে ৬৬৫ গুণ বেশি।